• বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

এক বিমানের সব আসনের টিকিট একজনেরই নামে

প্রকাশ:  ০৫ জানুয়ারি ২০১৮, ১৯:০২
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট

পুরো বিমানে একা যাত্রী হিসেবে নিউ ইয়র্কের রোশেস্টার থেকে ওয়াশিংটন ডিসির রোনাল্ড রেগন বিমানবন্দর উড়ে গেলেন মার্কিন যুবতী বেথ। ওই সফরে বেথ ছাড়া ছিলেন শুধু দুজন পাইলট এবং একজন বিমানকর্মী।

ঘটনাটা আসলে অন্যরকম। নিউ ইয়র্ক থেকে ওয়াশিংটন ডিসিগামী যে বিমানে টিকিট কেটেছিলেন বেথ, সেটি বাতিল হয়। তখন ওই বিমান সংস্থা যাত্রীদের মধ্যরাতের একটি উড়ানে যাত্রার ব্যবস্থা করে দেয়।

ঘোষণা শুনেই বেথ বিমানবন্দর ছেড়ে নিউ ইয়র্কে তার পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে রওনা দেন। ফের যাত্রার ৪৫ মিনিট আগে বিমানবন্দরে পৌঁছে বেথ লক্ষ্য করেন সেখানে ওই বিমানের জন্য যাত্রী হিসেবে একমাত্র তিনিই অপেক্ষা করছেন।

বেথ পরে বলেছেন, তাকে একা দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে বিমানবন্দরের এক কর্মী সে বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে সমস্যার কথা বুঝতে পারেন। ওই কর্মীই বেথকে জানান, প্রথমে মধ্যরাতের উড়ানে ব্যবস্থার কথা বললেও কিছুক্ষণ পরেই আরেকটি ঘোষণায় কর্তৃপক্ষ বলে, ওয়াশিংটনগামী অন্য একটি উড়ানে ওই যাত্রীদের ব্যবস্থা হয়ে গিয়েছে।

ফলে বাতিল হওয়া বিমানের সব যাত্রীরাই চলে গিয়েছেন আগেই। যেহেতু বেথ দ্বিতীয় ঘোষণার আগেই বিমানবন্দর ছেড়ে চলে যান, সেহেতু তিনি সেটা শুনতে পাননি। নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে রোশেস্টার বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ একটি ছোট বিমানে বেথকে ওয়াশিংটন পৌঁছনোর ব্যবস্থা করে। ওই বিমানে আসলে বিমানকর্মীদের নিয়ে যাওয়ার জন্য যারা ডিউটিতে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। ছোট হলেও পুরো বিমানে একমাত্র যাত্রী হওয়ার আনন্দ চেপে রাখতে পারেননি বেথ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বিমানে বসে থাকার ছবি পোস্ট করেছেন। সঙ্গে লিখেছেন, তিনি একা যাত্রী হলেও বিমানকর্মীরা তাকে খাদ্যপানীয় দিতে চেয়েছিলেন। পূর্ণ যত্ন নিয়েছেন। কিন্তু মাত্র ৭০ মিনিটের উড়ানে তিনি কিছুই খাননি।

একেই বোধহয় ইংরেজিতে বলে ‌‘হোয়াট গড ডাস, হি ডাস ফর দ্য বেস্ট’। নির্দিষ্ট উড়ান মিস হওয়ায় পুরো বিমানটাই বেথের নিজস্ব হয়ে গেল।

সূত্র: আজকাল