• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

মাতাল অবস্থায় ট্যাক্সি নিয়ে ঘুরলেন তিনটি দেশ, অতঃপর...

প্রকাশ:  ০৫ জানুয়ারি ২০১৮, ১৯:৫৮
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট

নতুন বছরের উদযাপন নিয়ে অনেকের জীবনে অনেক নতুন ঘটনা ঘটেছে। মাঝে মধ্যে তা অনেক ব্যয়বহুল হয়ে ওঠে। এক মদ্যপ নরওয়েজিয়ানের ঠিক তাই ঘটলো। নতুন বছর উদযাপনের উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। এর জন্যে একটি ট্যাক্সি নেন। সেই ট্যাক্সিতে ঘুরলেন তিনটি দেশ। এতে তার বিল উঠলো ২২০০ ডলার।

নরওয়ের ওই মদ্যপ লোকটি ডিসেম্বরের ৩১ তারিখে কোপেনহেগেনের ওয়াটারফ্রন্ট ডিস্ট্রিক্ট নাইহাভন থেকে রওনা দেন। বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় থেকেই তিনি মদ্যপ ছিলেন। পরিকল্পনা ছিল কোপেনহেগেন থেকে ট্যাক্সি ভাড়া করে বিভিন্ন জায়গা ঘুরে অসলোতে নিজের বাড়ি ফিরবেন। টানা ৬ ঘণ্টার যাত্রা ছিল তার। ঘুরেছেন ৬০০ কিলোমিটার। এর মধ্যে তিনি তিনটি দেশে গিয়েছেন। ডেনমার্ক থেকে শুরু করে সুইডেন হয়ে অবশেষে নরওয়েতে পা রেখেছেন।

পরে পুলিশ জানায়, লোকটি বাড়ি ফিরে ট্যাক্সির ভাড়া না মিটিয়ে সরাসরি তার ঘরে গিয়ে বিছানায় ওঠেন। গাড়ির ব্যাটারিও বসে গিয়েছিল। এই অবস্থায় তিনি নিজেকে যাত্রীর বাড়ির বাইরে অসহায় অবস্থায় দেখতে পান।

পরে ডেনিশ ট্যাক্সি ড্রাইভার অসলো পুলিশকে ডাকেন। তারা পরে কৌতুকপূর্ণ ঘটনাটি সম্প্রতি টুইটে প্রকাশ করে। ঘুমিয়ে পড়া ব্যক্তিকে ডেকে তোলা আর ট্যাক্সিটা চালু করার ব্যবস্থা পুলিশই করে দেয়। অবশেষে ১৮ হাজার নরওয়েজিয়ান ক্রোনার বিল মেটাতে বাধ্য হয়েছেন মদ্যপ ব্যক্তি।

/তুহিন/