Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫
  • ||

আন্তর্জাতিক মুক্তির একদিন আগেই বাংলাদেশে ‘ডেডপুল ২’!

প্রকাশ:  ১৬ মে ২০১৮, ১৪:৪৭
মাকসুদুল হক ইমু
প্রিন্ট icon

আবার দর্শকদের সামনে আসছে ডেডপুল। ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া মার্ভেল কমিকসের এই সুপারহিরো ছবির কথা দারুণভাবেই মনে থাকার কথা হলিউডের সিনেমাপ্রেমীদের। ৭৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে রীতিমত চমক সৃষ্টি করেছিলো ছবিটি। বক্স অফিস কাঁপানো সেই সাফল্যের রেশ রয়ে গেছে এখনো। এরমধ্যেই হাজির দ্বিতীয় কিস্তি। ১৮ মে আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘ডেডপুল ২’। তবে বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য চমকপ্রদ খবর হলো, আন্তর্জাতিক মুক্তির একদিন আগেই অর্থাৎ ১৭ মে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি।

আগের ছবির পরিচালক হিসেবে টিম মিলার কাজ করলেও এবারের ছবি পরিচালনা করছেন ডেভিড লেইচ। গতবার অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজক হিসেবেও কাজ করেছেন রায়ান। এবারেও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। তবে বরাবরের মতো তাঁর সঙ্গে থাকছেন ছবির আরও দুজন প্রযোজক। আগের ছবির মতো এখানেও রায়ান রেনল্ড ডেডপুলের ভূমিকায় আছেন। সেই সাথে থাকছেন জ্যাজি বিটজ, ব্রিয়ানা হিল্ডারব্র্যান্ড, জ্যাক ক্যাসি, স্টিফানসহ আরো অনেকে। আগের ছবি থেকে এবার থাকছেন মোরেনা বাক্কারিন ও টি জে মিলার। আর ক্যাবলের ভূমিকায় থাকছেন জশ ব্রোলিন। অন্যদিকে রাসেলের চরিত্রে অভিনয় করছে ১৫ বছর বয়সী জুলিয়ান ডেনিসন। ডেডপুল ২-এর ঘোষণা প্রথম চলচ্চিত্রের মুক্তির আগেই দিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কাজটাও চলছিল বেশ জোরেশোরেই। তবু দুটো বছর পেরিয়ে গেল ছবিটির পেছনে, এর মূল কারণ ছিলেন টিম মিলার। তাঁর হুট করে চলে যাওয়ায় বিপাকে পড়তে হয় নির্মাতাদের।

আকস্মিকভাবে সুপারপাওয়ারের অধিকারী হয়ে যায় ওয়েড উইলসন। প্রিয়জনের কাছ থেকে দূরে চলে যায়। তবে ডেডপুল চলচ্চিত্রে ভালোবাসার মানুষ আর সুপার পাওয়ার দুটোই শেষ পর্যন্ত ফিরে পায় ওয়েড। তখন অবশ্য নিজের নামকরণ সে করে নিয়েছে ডেডপুল, সঙ্গে যুক্ত হয়েছে লাল-কালো মুখোশ। এবারের ছবিতে কী থাকছে, সেটা নিয়ে খুব বেশি বলা যাচ্ছে না এখনই। এরইমধ্যে ছবির ট্রেলার প্রকাশিত হয়েছে। যা দেখে বলা যায়, ‘ডেডপুল ২’-এর গল্প আবর্তিত হয়েছে রাসেলকে ঘিরে। বাচ্চা ছেলে রাসেল একজন মিউটেন্ট। সময় পরিভ্রমণকারী ‘ক্যাবল’-এর হাত থেকে বাঁচাতে হবে রাসেলকে। যে কোনো মূল্যে তাকে বাঁচাতে বদ্ধপরিকর ডেডপুল। আর তাই মিউটেন্টদের দল ‘এক্স-ফোর্স’ তৈরি করে সে। শুরু হয় শ্বাসরূদ্ধকর মিশন। শেষ পর্যন্ত রাসেলকে রক্ষা করা যাবে কিনা সেটাই দেখার অপেক্ষা এখন।

/এটিএম ইমু

apps