• মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

পেঁয়াজের ঝাঁজ কমলেও মসলায় আগুন

প্রকাশ:  ০৬ জানুয়ারি ২০১৮, ০১:০৮
অর্থনৈতিক প্রতিবেদক
প্রিন্ট

সেঞ্চুরি ছাড়িয়ে যাওয়া পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। গত এক সপ্তাহে কেজিতে ১০ থেকে ২৫ টাকা পর্যন্ত কমেছে পেঁয়াজের দর। আর এক মাস আগের তুলনায় দাম এখন প্রায় অর্ধেক। রাজধানীর কাঁচাবাজারগুলোতে এখন প্রতি কেজি দেশি নতুন পেঁয়াজ ৬৫ থেকে ৭৫ টাকা এবং আমদানি করা পেঁয়াজ ৬০ থেকে ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে সরবরাহ বাড়ায় শীতের সবজির দামও কমেছে। তবে শীতের সময়ে নানা অনুষ্ঠানের কারণে মুরগি ও মসলার চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় এসবের দাম বেড়েছে। একই সঙ্গে ডিমের দামও বেড়েছে। শুক্রবার কারওয়ান বাজার, মোহাম্মাদপুর কৃষি মার্কেট ও মিরপুর শাহআলী বাজার ঘুরে এ চিত্র পাওয়া গেছে।

গত ডিসেম্বরে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পায়। মূলত দেশে অতিবৃষ্টি ও আমদানির প্রধান বাজার ভারতে বন্যায় পেঁয়াজের চাষ ব্যাহত হওয়ায় বাজারে দাম বেড়ে যায়। তখন প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ১৩০ থেকে ১৪০ টাকায় পৌঁছে। আর আমদানি করা পেঁয়াজ ৯০ থেকে ১০০ টাকায় বিক্রি হয়।

এখন দেশি জাতের পেঁয়াজ বাজারে আসতে থাকায় দাম অনেকটা কমেছে। শুক্রবার খুচরা বাজারে দেখা গেছে, দেশি নতুন ছোট পেঁয়াজ ৬৫ থেকে ৭৫ টাকা ও বড় পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৮৫ টাকা এবং আমদানি করা পেঁয়াজ ৬০ থেকে ৬৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে। আগের সপ্তাহে ছিল দেশি নতুন পেঁয়াজ ৯০ থেকে ১০০ টাকা ও আমদানি করা পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৭৫ টাকা কেজি। কারওয়ান বাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মো. মমিন মন্ডল জানান, এবার মৌসুমের শুরুতে নতুন পেঁয়াজ সরবরাহ কম থাকায় দাম অস্বাভাবিক বেড়ে ছিল। এখন দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ বৃদ্ধিতে দাম কমছে।

তবে বেড়েছে মুরগির দাম। কেজিতে ২০ টাকা বেড়ে ব্রয়লার মুরগি ১৪০ ও লেয়ার মুরগি ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। সোনালিকা জাতের মাঝারি আকারের মুরগি প্রতিটি ২০ টাকা বেড়ে ২০০ টাকা হয়েছে। ফার্মের লাল ডিম প্রতি ডজনে ১০ টাকা বেড়ে ৮০ থেকে ৮৫ টাকা হয়েছে। খুচরায় হালি বিক্রি হচ্ছে ২৮ থেকে ৩০ টাকা।

বাড়তি চাহিদায় জিরার দাম কেজিতে ৩০ থেকে ৪০ টাকা বেড়ে ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজিতে ২০০ টাকার মতো বেড়ে এলাচ বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৪০০ টাকায়। কিশমিশের দর কেজিতে ৫০ বেড়ে এখন প্রতিকেজি ৩৬০ টাকা হয়েছে। দারুচিনিও কেজিতে ১৫থেকে ২০ টাকা বেড়ে ৩০০ টাকা ও লবঙ্গ ৪০ থেকে ৫০ টাকা বেড়ে ১ হাজার ১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পোস্ত দানার দর কেজিতে প্রায় ৫০০ টাকা বেড়ে ১ হাজার ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সপ্তাহের ব্যবধানে কাঁচা মচিরের দাম কেজিতে ২০ টাকা কমে খুচরায় বাজারে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি নতুন আলু ২০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। প্রতিটি ফুল ও বাধা কপির দাম ৫-৭টাকা করে কমেছে। সিম, বেগুন ও শালগমসহ বেশিরভাগ সবজির কেজি ২৫ থেকে ৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।