• শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, -৩ পৌষ ১৪২৪
  • ||
  • আর্কাইভ

ঝারি খেলাম অপমান হলাম এখন বরণডালা পাঠাবো নাকি: প্রেসকে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:  ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৬:৪৭ | আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৭:৫৬
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে খালেদা জিয়াকে ফোন করে ঝাড়ি খেলাম। পুত্রের মৃত্যুর পরে গিয়ে অপমানিত হলাম। এখন কি বরণডালা পাঠাবো?। বৃহস্পতিবার গণভবনে বিএনপিকে আগামী নির্বাচনে আনতে কোনো আলোচনার উদ্যোগ নেয়া হবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, নাকে খত দিয়ে বিএনপি এবার নির্বাচনে আসবে, তাদের সঙ্গে কিসের আলোচনা। যাদের নূণ্যতম ভদ্রতা নেই । ছেলে মারা যাওয়ার পর বঙ্গবন্ধুর কন্যা বলেই আমি তাকে (খালেদা জিয়া) সান্তনা দিতে গিয়েছিলাম। কিন্তু আমার মুখের ওপর দরজা বন্ধ করা দেয়া হল। ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগেও আমি ফোন দিয়েছিলাম। কিন্তু দেয়ার পর কি হল! আমাকে ঝাঁড়ি দেয়া হল। তারপরও আপনারা কেন আমার ওপর আলোচনার জন্য চাপ সৃষ্টি করেন। 

 প্রধানমন্ত্রীর কম্বোডিয়া সফর নিয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কম্বোডিয়া সফরের নানা দিক নিয়ে দেশবাসির সামনে বক্তব্য রাখেন। পরে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নেরও উত্তর দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নির্বাচনে আসবে কিনা। এটা তাদের দলীয় সিদ্ধান্ত। যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। নির্বাচনে বিশ্বাস করে।তারা নিশ্চয়ই নির্বাচনে আসবে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, এতই যদি আপনাদের দরদ তাকে তাহলে আপনারা সেদিকে যান, সহমর্মিতা দেখান।

লন্ডন থেকে দেশে ফিরে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতে আত্মপক্ষ সর্মথন করে দেয়া বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, আমরা প্রতিহিংসার রাজনীতি করব না। আপনাকে ক্ষমা করে দিলাম। এর জবাব দিতে গিয়েই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উচিত দেশবাসির কাছে ক্ষমা চাওয়া। উনি আমাকে কিসের ক্ষমা করবেন। নাকি একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার জন্য তিনি আমার কাছে ক্ষমা চাচ্ছেন।

আগাম নির্বাচন সংক্রান্ত অপর এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশে এমন কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি, যেখানে আগাম নির্বাচনের কথা হবে।

তারেক রহমানকে দেশে ফিরে আনা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে সাজা প্রাপ্ত আসামি। ইতোমধ্যে আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে। নিশ্চয়ই আমরা আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। যুক্তরাজ্য সরকারের সঙ্গে তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান শেখ হাসিনা।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কম্বোডিয়া সফরের নানা দিক সাংবাদিকদের মাধ্যমে দেশবাসির কাছে তুলে ধরেন। প্রসঙ্গত, তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে গত ৩ ডিসেম্বর কম্বোডিয়া যান প্রধানমন্ত্রী। সফর শেষে গত ৫ ডিসম্বের মঙ্গলবার তিনি দেশে ফিরে আসেন।

/মজুমদার
দেশে আগাম নির্বাচনের কারণ ও সম্ভাবনা নেই: মেনন

 

close