• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

আবারো নৌকার পাশে থাকুন: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:  ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৬:৫৯
প্রতিনিধি
প্রিন্ট

আগামী নির্বাচনে আবারো নৌকার পক্ষে থাকার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,আমরা দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করছি, আগামীতেও করবো। অতীতের মতো আগামী নির্বাচনেও নৌকার পাশে থাকুন।

রোববার যশোর ঈদগাহ ময়দানে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুল ইসলাম মিলন। এর আগে প্রধানমন্ত্রী যশোরে ২৮টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন আর অবহেলার পাত্র নয়। বিশ্বের অনেকেই এখন বাংলাদেশকে সমীহ করে। বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এগিয়ে যাবে। বিশ্বের বুকে বাংলাদেশ মাথা উচু করে দাঁড়াবে।

জনসভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হয়, আর বিএনপি ক্ষমতায় এলে হত্যা, সন্ত্রাস, লুটপাট ও সন্ত্রাস বেড়ে যায়।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও তার দুই ছেলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুই ছেলে দেশের মানুষের টাকা মেরে বিদেশে পাচার করেছে। এটা বিদেশি সংস্থার লোক এসে সাক্ষী দিয়ে যায়। তাদের মা-ও কম যান না। এতিমের টাকা মেরে খান।

জাতির জনককে হত্যার পর এ দেশ হত্যা, ক্যু, কারফিউয়ের দেশে পরিণত হয়েছিল উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করা হয়েছিল এ দেশে। অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারীরা কারফিউ জারি করে দেশ চালাতো। জিয়া কারফিউ দিয়ে ভীতিকর পরিবেশে দেশ চালাতেন।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, জিয়ার গণতন্ত্র ছিল যুদ্ধাপরাধীদের নিয়ে। যে যুদ্ধাপরাধীরা এ দেশের স্বাধীনতা চায়নি, এ দেশের মা-বোনদের সম্ভ্রমহানি করেছে, পাকিস্তানি হানাদারদের হাতে তুলে দিয়েছে, নৃশংসভাবে গণহত্যা চালিয়েছে, সেই যুদ্ধাপরাধীদের বাংলাদেশের রাজনীতিতে পুনর্বাসিত করে পুরস্কৃত করাটা ছিল জিয়ার বহুদলীয় গণতন্ত্র।

/মজুমদার

apps