• মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

‘শেখ হাসিনা না থাকলে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হতো না’

প্রকাশ:  ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৯:২৩
তপু আহম্মেদ, টাঙ্গাইল
প্রিন্ট

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এমপি বলেছেন, একেকজন ব্যক্তির জন্যে আমরা একেকভাবে বিশ্বে সমাদৃত হই। বঙ্গবন্ধুর জন্যে আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি এবং সারা বিশ্বে আমরা পরিচিতি পেয়েছি। অনূরুপ জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্যে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে নতুন মাত্রায় অধিস্থিত হয়েছে। শেখ হাসিনা না থাকলে এদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হতো না। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনা যে উন্নয়ন করছেন তা অতীতে কোনো দিনই হয়নি। তাই আগামী নির্বাচনে জনগণ ভোট দিয়ে আবারো আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনবেন।

রোববার টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার খিলদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, শিক্ষকতা একটি মহান পেশা। আপনাদের বেতনসহ সুযোগ-সুবিধা আগের থেকে অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। আপনারা শিক্ষকরা আন্দোলন বাদ দিয়ে দেশ গড়ার কারিগর হিসেবে থাকুন। বিদ্যালয়ের উন্নয়নে বিত্তবানদের সম্পৃক্ত করুন।

বাংড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয়ের শতবছর পূর্তি অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক রিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কালিহাতীর সংসদ সদস্য হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাম্মৎ শাহীনা আক্তার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ তোতা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনোয়ারা বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনসার আলী বিকম প্রমূখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম।

শতবছর পূর্তিতে বিদ্যালয়ে প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্র-ছাত্রীদের মিলনমেলায় পরিণত হয়। অনুষ্ঠানের ২য় দিন সোমবার আলোচনা সভা ও তয় দিন মঙ্গলবার গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বাউলগান অনুষ্ঠিত হবে।

apps