• রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

টাইগারদের কোচ হচ্ছেন পাইবাস?

প্রকাশ:  ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ১৩:৪৩ | আপডেট : ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ১৫:৪২
সম্রাট কবির
প্রিন্ট

দু’জনেই সাক্ষাৎকার দিতে ঢাকায় এসেছিলেন। প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে বিসিবি কর্তাদের সামনে তুলে ধরেছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে নিজেদের পরিকল্পনাও। বিসিবি অবশ্য কাউকে চূড়ান্ত করেনি। কে হচ্ছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহের উত্তরসূরী? রিচার্ড পাইবাস নাকি ফিল সিমন্স? এমন প্রশ্ন যখন সমর্থদের মনে ঘুরপাক খাচ্ছে তখনই এই রেস থেকে একজন সরিয়ে নিলেন নিজেকে। বলছি, ফিল সিমন্সের কথা।

অভিজ্ঞতা ও জানাশোনার ভিত্তিতে ফিল সিমন্সকে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। সাবেক কোচ লালচাঁদ রাজপুতের শূন্যস্থান পূরণ করবেন এই ক্যারিবিয়ান। ৮ জানুয়ারি থেকে কাজ শুরু করবেন সিমন্স। ফেব্রুয়ারিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শারজায় সীমিত ওভারের সিরিজ সামনে রেখে আফগানিস্তানের প্রস্তুতি ক্যাম্পে যোগ দেবেন তিনি। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত তার সঙ্গে চুক্তি করেছে এসিবি। জিম্বাবুয়ে সিরিজ শেষে সিমন্সের চ্যালেঞ্জ মার্চের বিশ্বকাপ বাছাই। এরপর প্রথম টেস্ট খেলতে আফগানিস্তান যাবে ভারতে।

কোচ নির্বাচনে আফগান বোর্ডের করা তিনজনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় সবচেয়ে এগিয়ে ছিলেন সিমন্স। আয়ারল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোচ হিসেবে সফলতা তার এই চাকরির পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছে। এছাড়া আফগানদের সঙ্গে কোচিং পরামর্শকের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি।

ত্রিদেশীয় (বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে-শ্রীলংকা) ও বাংলাদেশ-শ্রীলংকা সিরিজে সাকিব-মাশরাফিদের ‘হেড’ কোচের দায়িত্ব পালন করবেন খালেদ মাহমুদ সুজন। এরপরই স্থায়ী কোচ নিয়োগ দেবে বিসিবি। নাজমুল হাসান এর আগে জানিয়েছিলেন, অনেকেই কোচ হওয়ার আগ্রহ দেখিয়ে বিসিবিতে বায়োডাটা পাঠাচ্ছেন। তবে হাথুরুসিংহের উত্তরসূরী হিসেবে প্রথমদিকে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে ছিলেন পাইবাসই।

এরপরই জানা যায় নতুন তথ্য। মাশরাফি-সাকিব-মুশফিকরা নাকি কোচ হিসেবে চান না পাইবাসকে। বিসিবি সভাপতিও এরপর আর সেভাবে পাইবাসের বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়ে মিডিয়ার সামনে কোনো বক্তব্য দেননি। ধারণা করা হচ্ছিল, ফিল সিমন্স হতে পারেন টাইগারদের পরবতী হেড কোচ! তবে এখন তিনি আফগানিস্তানের কোচ হওয়ায় তা আর সম্ভব নয়।

প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, তাহলে কি পাইবাসকেই বেছে নেবে বিসিবি? আবার এটাও শোনা যাচ্ছে পাইবাস কিংবা সিমন্স নন, বিসিবির পছন্দের তালিকায় রয়েছেন অন্য কেউ। সেটা হতে পারে দেশীয় কিংবা ভারতের কোনো সাবেক ক্রিকেটার। কে হচ্ছেন সাকিব-মাশরাফিদের কোচ, তা জানার জন্য কিছুদিন তাই অপেক্ষা করতেই হচ্ছে।

/সম্রাট

সময়টা উপভোগ করছেন শোয়েব-সানিয়া