• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

আজ থেকে সরকারের পতনের দিন শুরু: মির্জা ফখরুল

প্রকাশ:  ০২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৯:৪৬
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

আজ থেকে সরকার পতনের দিন শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, এই সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে গিয়ে নতজানু রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। আজ থেকে ছাত্রদল, যুবদল, মহিলাদল সরকারের পতন ঘটাবে। মঙ্গলবার (০২ জানুয়ারি) ছাত্রদলের ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের অডিটরিয়ামে এ ছাত্র সমাবেশের আয়োজন করার কথা থাকলেও পুলিশের অনুমতি না নেওয়ার কথা বলে ইনস্টিটউশনের দরজায় তালা ঝুলিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ। এরপর ইনস্টিটউশনের সামনেই সমাবেশ শুরু করে ছাত্রদল।

পরে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সমাবেশ স্থলে উপস্থিত হলে তার সম্মানে সন্ধ্যা ৫টা ২০ মিনিটের দিকে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের প্রধান ফটক খুলে দেয় ইনস্টিটিউশন কর্তৃপক্ষ।

সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, শামসুজ্জামান দুদু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীসহ বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা সমাবেশ স্থলে রয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনের দরজায় তালা ঝুলিয়ে ছাত্রদলের সমাবেশে বাধা দেওয়ার প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, হামলা-মামলা করে, দরজায় তালা লাগিয়ে জনগণের আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না। একমাস আগে অনুমতি নেওয়া হলেও হঠাৎ করে কার ইঙ্গিতে ছাত্রদলের অনুষ্ঠান বানচালের চেষ্টা করা হচ্ছে?

মঙ্গলবার সকাল থেকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সমাবেশে অংশ নিতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সামনে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা জড়ো হতে থাকেন। কিন্তু পুলিশের অনুমতি না নেওয়ার অভিযোগে মূল ফটকের তালা ঝুলিয়ে দেয় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন কর্তৃপক্ষ।

এ প্রসঙ্গে ছাত্রদলের দফতর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটওয়ারী জানান, সকাল ১০টায় সমাবেশ মঞ্চ প্রস্তুত করতে নেতাকর্মীরা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে এলে অডিটরিয়ামে প্রবেশ করতে বাধা দেয়া হয়। কর্তৃপক্ষ বলে পুলিশের অনুমতি না থাকায় অডিটরিয়ামে ছাত্র সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না।

তিনি আরও জানান, যথাযথ নিয়ম মেনে তারা ছাত্র সমাবেশের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করলেও হঠাৎ করেই ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন কর্তৃপক্ষ তাদের সমাবেশ করার অনুমতি দিচ্ছে না।

apps