• সোমবার, ২৮ মে ২০১৮, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
  • ||

শিক্ষামন্ত্রী নাহিদের ওপর কেরামতি!

প্রকাশ:  ০৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১০:২৬
উৎপল দাস
প্রিন্ট
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বাম রাজনীতির এক সময়ের ক্রেজ ছিলেন। নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে তিনি আজ ক্ষমতাসীন দলের সর্বোচ্চ ফোরাম থেকে শুরু করে গুরুত্বপূর্ণ একটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। ব্যক্তি নুরুল ইসলাম নাহিদ সৎ ও পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি হিসাবে সবার কাছেই গ্রহণযোগ্য। কিন্তু গত কয়েক বছরে তার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের রয়েছে হাজারো ব্যর্থতার সুস্পষ্ট উদাহরণ। গেল বছরই ৭৮ বার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় শিক্ষামন্ত্রী কোনো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনে ব্যর্থ হয়েছেন বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

সর্বশেষ সব মন্ত্রীদের চোর এবং সরকারি কর্মকর্তাদের সহনীয় মাত্রায় ঘুষ খাওয়ার অনুরোধ জানিয়ে যে বক্তব্য দিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন তাতে করে বর্তমান সরকারকে এ মুহুর্তে চড়া মূল্য দিতে না হলেও ভবিষ্যতে বিরোধী পক্ষ এটি নিয়ে রাজনীতি করবে বলেও মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। 

ফলে সর্বশেষ মন্ত্রিসভা রদবদলের সময় শিক্ষমন্ত্রীর ওপর চাপ কমাতে রাজবাড়ীর এমপি কেরামত আলীকে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তৃণমূল রাজনীতির পরিচ্ছন্ন ও ত্যাগী এই নেতা শুধু তার কাজের স্বীকৃতিই পেয়েছেন এমনটি ভাবছেন না কেউ কেউ। অনেকে মনে করছেন নাহিদের ওপর কেরামতি দেখাতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যেন নুরুল ইসলাম নাহিদ ভবিষ্যতে আরো সতর্ক থাকেন এবং বেফাঁস মন্তব্য না করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও নাহিদের মন্ত্রণালয়ের কেরামত আলীর ভাগ বসানোকে তার ওপর কেরামতি হিসাবেই অনেকে আখ্যা দিচ্ছেন।

/নাঈম