• মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৪
  • ||

নেতাকর্মীরা শিক্ষিত না হলে ছাত্রলীগ টিকবে না: হানিফ

প্রকাশ:  ০৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১৯:২৩
চট্টগ্রাম প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম ‍হানিফ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সুশৃঙ্খল হওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, একটি সংগঠন কখনো এগিয়ে যেতে পারে না, যদি সংগঠনটি সুশৃঙ্খল না হয়। এখন ছাত্ররাজনীতি অনেক বদলে গেছে। বর্তমান ছাত্রসমাজের মধ্যে শৃঙ্খলার বড়ই অভাব, যা আমাদের ব্যথিত করে, কষ্ট দেয়।

আজ ছাত্রলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নগরীর মুসলিম ইনস্টিটিউট হল প্রাঙ্গনে চট্টগ্রাম নগর শাখার আয়োজিত অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনেই কখনো পাল্টাপাল্টি শ্লোগান, কখনো উচ্ছৃঙ্খল আচরণ, কখনো নেতাদের নিয়ে সেলফি তোলার প্রতিযোগিতা এবং অতিথির বক্তব্যের সময় অহেতুক শ্লোগান দিয়ে বিরক্ত করার প্রেক্ষিতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখার সময় এ পরামর্শ দেন। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ও উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া। নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রণির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন আহমেদ, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, আলতাফ হোসেন বাচ্চু, কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম। জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান।

মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, ছাত্ররাই আমাদের ভবিষ্যৎ। তোমাদের মধ্য দিয়েই আমাদের ভবিষ্যৎ নেতা তৈরি হবে। তোমাদের মধ্য থেকেই ভবিষ্যতে ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার, সচিব হবে। কেউ হবেন রাজনীতিবিদ। তোমাদের মধ্যে যদি নিয়ম ও শৃঙ্খলাবোধ না থাকে, তাহলে জাতি হতাশ হবে।

মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘এখন যারা ধাক্কাধাক্কি করছেন, দলের যখন দুর্দিন ছিল তখন এই ধরনের সভায় ৪-৫ জনও পাওয়া যেত না। এখন দল সরকারে আছে বলে অনেকে এসেছেন। আপনাদের কাছে করজোড়ে আবেদন-সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। আপনারা শিক্ষিত না হলে যারা এই রাষ্ট্রের মূল আদর্শে বিশ্বাসী নয়, তারা নেতৃত্বে চলে আসবে। নেতাকর্মীরা শিক্ষিত না হলে ছাত্রলীগ টিকবে না। ছাত্রলীগ না টিকলে যুবলীগ টিকবে না। যুবলীগ না টিকলে আওয়ামী লীগও টিকবে না।’

ইমরান আহমেদ ইমু বলেন, ‘চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস, দিয়াজ ইরফান চৌধুরী ও নাসিম আহমেদ সোহেলকে হত্যা করা হয়েছে। ছাত্রলীগ শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড। কিন্তু কারা ছাত্রলীগকে শেখ হাসিনার কাছ থেকে দূরে সরাতে চায়, সেটা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ অনুসন্ধান করে দেখলে ভাল হয়।’

/সাজ্জাদ

apps