• শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

গাজীপুরে বিএনপির কার্যালয়ে তালা

প্রকাশ:  ০৪ জানুয়ারি ২০১৮, ২৩:৫৪ | আপডেট : ০৫ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:১৪
গাজীপুর প্রতিনিধি
প্রিন্ট

গাজীপুরে বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে পিয়নকে পুলিশ তাড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ নেতা-কর্মীদের। শুক্রবার সকাল ১০টায় বিএনপির গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক সমাবেশ ঠেকাতে পুলিশ এমন পদক্ষেপ নিয়েছে বলেও দাবি তাদের।

বৃহস্পতিবার রাতে জেলা শহরের রাজবাড়ি রোডে অবস্থিত বিএনপির কার্যালয়ে তালা ঝুলতে দেখা যায়। তবে কার্যালয়ের সামনে পুলিশ সদস্যদের দেখা যায়নি। কার্যালয়ের পিয়ন রজব আলীর সঙ্গে মুঠোফোনে অনেক চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

জয়দেবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহমুদ হাসান পূর্বপশ্চিমের কাছে বিএনপির এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, আমরা কেন তালা দিব। এরকম কোন ঘটনা নেই। বিএনপির দাবি ঠিকনয়।

এ বিষয়ে গাজীপুর মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আইনজীবি মেহেদী হাসান এলিস পূর্বপশ্চিমকে বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছিলো। এরই প্রতিবাদে শুক্রবার সকাল ১০টায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকারের ফ্যাসিবাদী আচরণ এবং বাকশালী মনোভাবের নগ্ন বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। দেশের জনগন তাদের আর ৫ জানুয়ারীর মত নির্বাচন করতে দিবেনা। অগণতান্ত্রিক ও স্বৈরাচারী আওয়ামী লীগ জনতার শক্তিকে ভয় পেয়ে এমন আচরণ করছেন বলেও দাবি এই বিএনপি নেতার।

এদিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসমাবেশের অনুমতি না পেয়ে সরকার ‘দ্বৈতনীতি’ অনুসরণ করেছে বলে মন্তব্য করেন। এসময় তিনি ৫ জানুয়ারিকে ‘কলঙ্কিত অধ্যায়’ হিসেবে অভিহিত করেন।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে বিএনপি। রাজধানীতে জনসমাবেশের অনুমতি না পেলেও মহানগর, জেলা ও উপজেলায় ‘কালো পতাকা’ মিছিল করার কথা রয়েছে দলটির।