Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫
  • ||

বিএনপির অাইনজীবীদের বিভ্রান্তি, কয় মামলায় গ্রেফতার খালেদা!

প্রকাশ:  ১৬ মে ২০১৮, ১৮:৪৫ | আপডেট : ১৬ মে ২০১৮, ১৮:৫০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তবে তার বিরুদ্ধে দায়ের করা অন্য মামলাগুলোতে জামিন না হওয়া পর্যন্ত তিনি মুক্তি পাচ্ছেন না। বিএনপি চেয়ারপারসনকে অন্য আর কী কী মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে, তা নিশ্চিত হতে পারছেন না তার আইনজীবীরা।

বুধবার আপিল বিভাগের রায়ের পর খালেদা জিয়ার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন জানান, কুমিল্লার দুটি ও নড়াইলের একটি মামলায় তাঁর জামিন নিতে হবে।

তিনি বলেন, সরকার যদি অশুভ প্রচেষ্টা না চালায় তাহলে তিনি এসব মামলায় জামিন নিয়ে দ্রুতই ছাড়া পাবেন।

বিএনপির চেয়ারপারসনের আরেক আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ জানিয়েছেন, তার বিরুদ্ধে সাতটি মামলা আছে। এরমধ্যে তিনটি কুমিল্লায়, দুটো ঢাকায় ও একটি নড়াইলে। অপর মামলার কথা তিনি উল্লেখ করেননি।

খালেদা জিয়ার জামিন প্রসঙ্গে মওদুদ আহমদ বলেন, আপিল বিভাগ তার জামিন বহাল রেখেছে এখন নিম্ন আদালতে অন্যমামলাতে জামিন পেতে আমাদের খুব বেশি অসুবিধা হবে না।

বিএনপির চেয়ারপারসনের অপর আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া জানিয়েছেন অাবার ভিন্ন তথ্য। তিনি বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়া জামিন পেলেও অন্য মামলায় গ্রেপ্তার থাকায় আপাতত ‍মুক্তি পাচ্ছেন না। খালেদা জিয়াকে কুমিল্লায় তিন, ঢাকায় দুই ও নড়াইলের একটি মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এই ছয়টি মামলায় নিম্ন আদালতে তাকে জামিন পেতে হবে। হাইকোর্টে জামিনের প্রস্তুতি নিচ্ছি।’

সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, বড় পুকুরিয়া, গ্যাটকো, নাইকো, জিয়া চ্যারিটেবল এই চারটি মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে প্রডাকশন ওয়ারেন্ট রয়েছে। এগুলো প্রত্যাহারের আবেদন করা হবে। তাঁর বিরুদ্ধে সর্বমোট মামলা ৩৬টি।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬টি মামলা রয়েছে নিশ্চিত করে বিএনপির আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল জানাচ্ছেন ভিন্ন তথ্য। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুটি মামলায় প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট (হাজিরা পরোয়ানা) রয়েছে। মামলাগুলোর সব ফাইল আমার কাছেই থাকে। এখন সরকার বাধা সৃষ্টি না করলে এসব মামলাতেও তাঁর জামিনে মুক্তিতে বাধা থাকবে না।

খালেদা জিয়ার জামিনে কারামুক্তিতে আর কত মামলায় জামিন পেতে হবে জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, এ বিষয়ে আমি জানি না।স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এ তথ্য দিতে পারবেন।তবে সচরাচর কোনো আসামির যদি একাধিক মামলা থাকে, তা হলে সেসব মামলায় জামিন না পাওয়া গেলে মুক্তি পাওয়া যায় না।

বিএনপি চেয়ারপারসন,খালেদা জিয়া
apps