• সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮, ১১ আষাঢ় ১৪২৫
  • ||

'সাপকে বিশ্বাস করা যায় কিন্তু বিএনপি-জামায়াতকে না'

প্রকাশ:  ১২ জুন ২০১৮, ০২:১৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, বিদেশে কান্নাকাটি করে ক্ষমাতায় আসা যাবে না। ক্ষমতায় আসতে হলে রাজনৈতিক গতিধারা ধরে এগোতে হবে। 
 
সোমবার বিকালে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলানায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে এক আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এই আলোচনার সভার আয়োজন করে। 
 
সভায় বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে নানক বলেন, নির্বাচন আসলেই আপনাদের একটা ট্রেডিশন ছিল ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলা। আওয়ামী লীগকে ভারতের সঙ্গে জুড়ে দেয়া। ভারত জুজুর ভয় দেখিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করেছেন। এখন সেই দেশের কাছে গিয়ে বিএনপি ক্ষমা চায়। তারা গিয়ে বলে আর আমাদের দেশে আপনাদের অন্তর্ঘাতমূলক কোনো গোষ্ঠীকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দেব না। তাহলে বিএনপি আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে উল্লেখ করে নানক বলেন, আমার দেশের এক ইঞ্চি মাটিও কোনো বন্ধু দেশের ন্যায্যতা অবদমিত হবে বিএনপিকে এই ক্ষমতা দেয়া হবে না। এসময় তিনি বলেন, ক্ষমতায় যেতে হলে নির্বাচন করে ক্ষমতায় যেতে হবে, ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতায় যেতে পারবে না। 
 
খালেদা জিয়ার চিকিৎসার প্রসঙ্গ টেনে নানক বলেন, খালেদাকে কারাগারে আওয়ামী লীগ দেয়নি। আদালত তাকে কারারুদ্ধ করেছে। জেল কোডের বাইরে জেল কর্তৃপক্ষের কিছু করার নাই। জেলখানায় হাসপাতাল রয়েছে ডাক্তার রয়েছে তারা দেখবেন কি হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ম্যাডাম এরশাদ সাহেবকে কিভাবে রেখেছিলেন মনে আছে? তখন বোঝেন নাই। আপনারাও একদিন জেলখানায় যাওয়া লাগতে পারে। এসময় তিনি বলেন, আামি পরিষ্কার করে বলতে চাই। মনে রাখবেন অজগর, কেউটে, গোখরো সাপকে বিশ্বাস করা যায়, কিন্তু বিএনপি-জামায়াতকে বিশ্বাস করা যায় না।  
 
তারেক রহমানকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামীল লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ওইখানে (লন্ডনে) বসে বসে বিন লাদেনের মতোন বক্তৃতা করেন। সৎ সাহস যদি থাকে বাংলাদেশে আসেন আইনের মোকাবেলা করেন, দেশের মানুষের মুখোমুখি হন। দেখুন কত ধানে কত চাল? 
 
ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন এর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন প্রমূখ।