Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫
  • ||

মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের সিদ্ধান্ত

১০ বছরের বেশি কেউ ভিসা পাবে না

প্রকাশ:  ২৪ জুন ২০১৮, ১২:১৮ | আপডেট : ২৪ জুন ২০১৮, ১৪:০১
আহমাদুল কবির (মালয়েশিয়া)
প্রিন্ট icon

মালয়েশিয়ায় ১০ বছরের বেশি কেউ ভিসা পাবে না। ইতোমধ্যে যারা ১১ ও ১২ তম ভিসা (ষ্টিকার) পেয়েছেন সেগুলো ও বাতিল করেছে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ।

২২ জুন দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ এ বিষয়ে একটি নোটিশ জারি করেছে। নোটিশে বলা হয়েছে ১১ ও ১২ নম্বর ভিসা প্রাপ্তদেরও দেশে ফেরত যেতে হবে । ইমিগ্রেশন বিভাগের এমন ঘোষনায় বিদেশি কর্মীরা পড়েছেন বিপাকে। এসব বিদেশি কর্মীদের মধ্যে দেশে ফিরতে হবে প্রায় লক্ষাধিক বাংলাদেশি ।

এদিকে মালয়েশিয়ায় নতুন শ্রমিক নিয়োগ সাময়িক স্থগিত করার পরপরই সরকারের এমন ঘোষনায় বিদেশি কর্মীদের মাঝে বিরাজ করছে উদ্বেগ উৎকন্ঠা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০০৭ সালের কলিং ভিসায় যারা মালয়েশিয়া এসেছেন তারা এর আওতায় পড়েছেন।

এদিকে দেশটির অভিবাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, অবৈধভাবে বসবাসরত অভিবাসীদের বিরুদ্ধে জুলাই মাস থেকে ‘ওপস মেগা থ্রি-জিরো’ সাঁড়াশি অভিযান শুরু করবে দেশটির প্রশাসন। ২০১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে চালু হওয়া বৈধকরণ প্রকল্পে যেসব কর্মী ও নিয়োগকর্তারা নিবন্ধন করতে ব্যর্থ হয়েছেন, তাদের আটক করাই এ অভিযানের প্রথম লক্ষ্য। সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক সেরি মুস্তাফার আলি এ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

যারা অবৈধভাবে কর্মরত রয়েছেন, তাদেরকে আগামী ৩০ আগস্টের মধ্যে ‘থ্রি প্লাস ওয়ান’ এর আওতায় তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে নিয়োগকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এ দিকে দেশটির বিভিন্ন সংস্থার তথ্য অনুযায়ী এ সংখ্যা ৪ লাখের বেশি। উপার্জন ভালো হওয়ায় ভিসার মেয়াদ শেষ হলেও নবায়ন না করেই থেকে যাচ্ছেন অনেকে। আকাশ, সমুদ্র বা স্থলপথে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিবেচনায় উন্নত দেশগুলোর মতোই সুবিধা রয়েছে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশ মালয়েশিয়ায়। তাই দুই যুগ আগে থেকেই আশেপাশের বিভিন্ন দেশের জন্য অন্যতম শ্রমবাজার এটি। পাশাপাশি দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা ও পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটায় অনেক পর্যটকদের আগ্রহ মালয়েশিয়ার দিকে।

বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত প্রবাসীরা দিনের পর দিন হাড়ভাঙা পরিশ্রমের পর অমানবিকভাবে একঘরে গাদাগাদি করে রাত্রিযাপন করেন বাংলাদেশি শ্রমিকরা। তারা জানান, পরিবারের মুখে হাসি ফোটাতে এভাবে পড়ে আছেন প্রবাসে। সামান্য কিছু বাড়তি আয়ের আশায় রাতভর কাজ করছেন অনেকেই।

আধুনিক মালয়েশিয়া গড়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশিদের অবদান যেমন রয়েছে সেই সঙ্গে অবৈধ প্রবেশ এবং থেকে যাওয়াসহ নানা কার্যকলাপে ক্ষুন্ন হচ্ছে দেশের ভাবমূর্তি। তাই এসব বিষয়ে শক্ত পদক্ষেপ নেয়া জরুরি এমনটাই মত সংশ্লিষ্টদের।

ওএফ

ভিসা
apps