• শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

টাঙ্গাইলে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬

প্রকাশ:  ২৫ জুন ২০১৮, ০৯:২১ | আপডেট : ২৫ জুন ২০১৮, ১৫:২০
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
প্রিন্ট

টাঙ্গাইলে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ২৮ জন। সোমবার (২৫ জুন) সকালে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলা এবং ঘাটাইল উপজেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা সবাই নির্মাণ শ্রমিক বলে জানায় পুলিশ।

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক উল্টে খাদে পড়ে ৫ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৩০ জন। সোমবার সকাল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার সাতুটিয়া ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা সবাই নির্মাণ শ্রমিক বলে জানায় পুলিশ।

নিহত ৫ জনের মধ্যে ৩ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলেন, গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার পদমি শহর গ্রামের ইব্রাহিম বেপারীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৫), একই জেলা ফুলছড়ি উপজেলার পশ্চিম ঘাটগাছি গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে সাইদুর রহমান ও গাইবান্ধা জেলার মিরপুর উপজেলার আব্দলের ছেলে আবুল কালাম।

এ ব্যাপারে কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বলেন, হতাহতরা গাইবান্ধা থেকে ট্রাক রিজাভ করে সিলেটের দিকে যাচ্ছিলেন। পরে ট্রাকটি উপজেলার সাতুটিয়া ব্রিজ এলাকায় পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে প্রায় ৩৫ জন আহত হন। পরে আহতদেরকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চার জনকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পৌনে ১০ টার দিকে আরো একজনের মৃত্যু হয়। আহত বাকিদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। নিহতদের লাশ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে রয়েছে বলে ওসি জানান।

অন্যদিকে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় পিকআপ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে খাদে পড়ে এক নির্মাণ শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ৩ জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার মোগলপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত খলিলুর রহমান (৩৫) টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার সাং ডুবাইল এলাকার মৃত ময়নার ছেলে। হতাহতরা সবাই নির্মাণ শ্রমিক বলে পুলিশ জানায়।

এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানার এসআই সেকেন্দার আলী বলেন, হতাহতরা মিকচার মেশিং নিয়ে ছোট একটি পিকআপ করে ঘাটাইল থেকে হামিদপুরের দিকে যাচ্ছিলেন। পরে তারা উপজেলার মোগলপাড়া এলাকায় পৌছলে পিকআপের চাকা পামচার হলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে একজন নিহত ও তিন জন আহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লক্সে পাঠানো হয়। সেখান থেকে গুরুতর একজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। হতাহতারা সবাই নির্মাণ শ্রমিক বলে তিনি জানান।

পি.এস

নিহত
apps