• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

একটি খুব ছোট গল্প

প্রকাশ:  ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:৫০
নির্মলেন্দু গুণ
প্রিন্ট

যথাবিহিত শ্রদ্ধা ও বিনয়পূর্বক নিবেদন এই যে, আমি বার্নিকাট, বাংলাদেশে নিযু্ক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত, এই সুযোগে আপনার সঙ্গে আমি একটা সেলফি তুলতে চাই।

: ঠিক আছে, তোলেন।

: আমি যে আপনার খুব কাছে পৌঁছাতে পেরেছিলাম, হোক না তা কয়েক মুহুর্তের জন্য, তার একটা রেকর্ড হয়ে থাকবে এই ছবিটা। ছবি কথা বলে।

: আমার মুচকি হাসিটা ঠিক আছে তো? You like that?

: Very much, your excellency. I feel so proud!

: সত্যি বলছেন?

: আবার জিগায়! আমার আগে যিনি রাষ্ট্রদূত ছিলেন, মিস্টার মরজিনা- উনার তো আপনার সঙ্গে একটিও

ছবি নেই।

: তাই নাকি? হতে পারে। He kept me so busy during his days in Dhaka, you know! I'm sorry for Mr Diwana Modina.

: He was neither Diwana nor Modina, his name is Morjina.

: Sorry, আমার নাম মনে থাকো না। তবে তোমার নামের শেষে কাট আছে তো, ওটা মনে থাকবে মিস কাট।

: This is very very emmbarassing for America, the great super power, her excelency!

Thanks for allowing me দিস selfie with you.

SH smiled and said : Yes, I undetstand. আপনাদের সমস্যাটা আমি বুঝি। Every country has some problems, the super powers have super problems.

: True. We hope you have a credible (♥Inclusive) election.

: You had a good dinner that night in Gulshan, right? ফেরার পথে তোমার গাড়িতে নাকি আক্রমণ হয়েছিলো। সত্যি? আমি দেখবো বিষয়টা, don't worry.

: Thank you Mame!!

(লেখকের ফেসবুক স্ট্যাটাস)

প্রধানমন্ত্রী,মার্শা বার্নিকাট,নির্মলেন্দু গুণ