• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
  • ||

পুলিশের সামনে বুক পেতে দাঁড়ালো বিএনপির কর্মী

প্রকাশ:  ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৪:৪০ | আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৪:৪৪
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

নয়াপল্টনে বুধবার বিএনপি কার্যালয়ের সামনে নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের সামনে বুক পেতে দিয়ে দাঁড়াতে দেখা যায় বিএনপির দুই কর্মীকে।

ওই দুই কর্মী পুলিশের সামনে শার্টের বোতাম খুলে দাঁড়িয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছিল। বুধবার (১৪ নভেম্বর) বেলা ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ারশেল, রাবার বুলেট ও শটগানের ফাঁকা গুলি ছুঁড়ছে পুলিশ। এদিকে, বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশের গাড়িসহ বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করেছে। নয়াপল্টন এলাকায় সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ইটপাটকেল নিক্ষেপ করছে বিএনপির বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বিএনপির বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা পুলিশের গাড়ি ভাংচুর করে তাতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। নেতাকর্মীদের অনেকে আহত হয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অবস্থান নিয়েছেন।

পল্টনে পুলিশের সামনে এভাবে বুক পেতে দেন বিএনপির এই কর্মী

উল্লেখ্য, আজ বুধবার (১৪ নভেম্বর) তৃতীয় দিনের মতো বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি চলছিল। এ উপলক্ষে গত দুই দিনের মত আজও বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। সকাল থেকেই মিছিল নিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসতে থাকেন। রঙ-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন হাতে স্লোগান দিয়ে, ব্যান্ড বাজিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও এর আশপাশের সড়কে মিছিল করেছেন।

নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড হাতে সাত দফা এক দাবি, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, তারেক রহমানের মুক্তি চাই, রাজপথ ছাড়ব না ইত্যাদি স্লোগান দিচ্ছিলেন। অনেকে জনসমর্থনের প্রমাণ দিতে বিশাল বিশাল বহর নিয়ে হাজির হয়েছেন।

/রবিউল

নয়াপল্টন,বিএনপি,পুলিশ,টিয়ারশেল
apps