• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
  • ||

মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে থাকার নির্দেশ শেখ হাসিনার, বাকিদের মূল্যায়নের আশ্বাস

প্রকাশ:  ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:৪৩
মাকসুদুল হক ইমু
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাত শেষ হয়েছে।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সতর্ক করে শেখ হাসিনা বলেছেন, কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হলে তাকে দল থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হবে।

‘নির্বাচনে এক আসন থেকে একাধিক নেতার মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন, এ বিষয়ে আ’লীগ সভাপতির মন্তব্য কি’ এমন প্রশ্নের জবাবে গণভবন থেকে বেরিয়ে মনোনয়নপ্রত্যাশী এক নেতা পূর্বপশ্চিমকে বলেন, শেখ হাসিনা বলেছেন ,আওয়ামী লীগ অনেক বড় দল। এখানে এরকম হতেই পারে। তিনি ওয়াদা করতে বলেছেন, আমরা যাকে প্রার্থী দিবো, সবাই তার সঙ্গেই কাজ করবেন।

তিনি বলেন, নেত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, নির্বাচনে ফের ক্ষমতায় আসলে জেলা, উপজেলা ভিত্তিক বিভিন্ন পদে যোগ্যদের সুযোগ দেওয়া হবে।

মনোনয়নপ্রত্যাশী এই নেতা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তিন বছর যাবৎ জরিপ করছেন। সেই জরিপের ভিত্তিতেই মনোনয়ন দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী সব সময় বলেছেন, বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে আসুক। তিনি বিশ্বাস করেন, গত দশ বছরে সরকার যত উন্নয়নমূলক কাজ করেছে, সেই খবর জনগণের কাছে পৌঁছে দিলে অবশ্যই আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় আসবে।

গাজীপুর-২ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী জাহিদ আহসান রাসেল পূর্বপশ্চিমকে বলেন, নেত্রী বলেছেন, আগামী নির্বাচন অনেক চ্যালেঞ্জিং হবে। তাই আমরা যাকেই মনোনয়ন দিবো সবাইকে তারপক্ষে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, যেহেতু এক আসনে অনেক নেতাই মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ফের ক্ষমতায় আসলে সবাইকে যোগ্যতা অনুযায়ী মূল্যায়ন করা হবে।

জানা যায়, আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্থান স্বল্পতার কারণে মনোনয়নপ্রত্যাশীরা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে গণভবনে যান। বেলা ১১টার দিকে সাক্ষাৎকার শুরু হয়।

/আরাফাত

শেখ হাসিনা,নির্বাচন
apps