• বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫
  • ||

তসলিমার নিষিদ্ধ বই ইংরেজিতে

প্রকাশ:  ১২ মার্চ ২০১৮, ১৫:০৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট

বাঙালি লেখিকার লেখা বই নিষিদ্ধ হয়েছিল বাংলায়। এবার সেই বইটিই প্রকাশিত হল ইংরেজিতে। এখন আর বই প্রকাশে কোনও জটিলতা থাকল না।

যাঁকে নিয়ে এত আলোচনা সেই লেখিকা হচ্ছেন বিখ্যাত তসলিমা নাসরিন। আর তার লেখা বইটির নাম হল ‘দ্বিখণ্ডিত’।

তলসিমা নাসরিনের লেখা বইতে আঘাত করা হয়েছিল মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুভূতিতে। এমনই অভিযোগ তোলা হয়েছিল বাংলাদেশের লেখিকা তসলিমার বিরুদ্ধে। সেই সময় তিনি পশ্চিমবঙ্গেই থাকতেন। ২০০৩ সালে ‘দ্বিখণ্ডিত’ বইটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছিল তৎকালীন বাম সরকার।

সেই বিতর্ক কিছু কম হয়নি। সেই জল গড়িয়েছিল আদালতে। ২০০৫ সালে উক্ত বই থেকে বেশ কিছু অংশ মুছে ফেলতে বাধ্য করা হয় লেখিকা তসলিমাকে। একইসঙ্গে ধর্মীয় মৌলবাদীদের চাপে তাকে বাধ্য করা হয় পশ্চিমবঙ্গ ত্যাগ করতে।

মহিলাদের অধিকার নিয়ে বিভিন্ন সময়ে কলম ধরেছিলেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। শুধু তাই নয়, সরাসরি প্রতিবাদ করেছেন সমাজের নানাবিধ প্রচলিত রেওয়াজ নিয়েও। যার কারণে একসময় তাঁকে নিজের জন্মভূমি বাংলাদেশ ছাড়তে হয়েছিল। ২০০৫ সালে কলকাতা ছেড়ে চলে যাওয়ার পরে আর বঙ্গভূমিতে ফেরা হয়নি তসলিমার।

যে বইয়ের কারণে তসলিমা নাসরিনকে বাংলা ছাড়তে হয়েছিল সেই বইটি এবার প্রকাশিত হচ্ছে ইংরেজিতে। ভাষা বদল করে নতুন নাম হয়েছে “Split: a Life”। একজন চিকিৎসক থেকে কী করে বিতর্কিত লেখিকা হয়ে উঠলেন তসলিমা নাসরিন? কেন তাকে মৌলবাদীদের রোষের মুখে পড়তে হয়েছিল বারবার? কেন তার লেখা বই ‘লজ্জা’ নিষিদ্ধ করা হল? কেন তাকে ভারত থেকে নির্বাসনে পাঠানো হল? এই সকল প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে ‘দ্বিখণ্ডিত’ বইটির ইংরেজি সংস্করণে। যেটি অনুবাদ করেছেন মহার্ঘ্য চক্রবর্তী।

/এসএম

apps