• মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ৪ পৌষ ১৪২৫
  • ||

বিএনপি-জামায়াতের সময়ে কোন উন্নয়ন হয়নি: রেলমন্ত্রী

প্রকাশ:  ৩০ ডিসেম্বর ২০১৭, ২০:৫২
কুমিল্লা প্রতিনিধি
প্রিন্ট

রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, জামায়াত-বিএনপির সময় চৌদ্দগ্রাম অবহেলিত ছিল। এখন চৌদ্দগ্রামের উন্নতি হয়েছে। যারা অতীতে নির্বাচিত হয়েছিলেন, তাদের দ্বারা জনগণের কোন উন্নয়ন করেনি। জাতীয় পার্টির সাবেক প্রধানমন্ত্রী কাজী জাফর, জামায়াতের ডাঃ তাহের, বিএনপির সামছুল হক এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

তারা নিজেদের উন্নয়ন করেছে, জনগণের উন্নয়ন করেনি। আ’লীগ ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশির্বাদে চৌদ্দগ্রামের রাস্তা-ঘাট, পুল-কালভার্টসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। জামায়াতের এমপি থাকাকালিন আ’লীগের কর্মী, সমর্থক ও মুক্তিযোদ্ধাদের উপর নির্যাতন চলছিল। এখন আ’লীগের সময় বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের উপর কোন নির্যাতন হচ্ছে না।

রেলের উন্নয়ন বিশ্বে রোল মডেল উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক আরও বলেন, আগে রেলে ৫’শ কোটি টাকা বাজেট হতো। বিএনপির সময় রেলের কোন উন্নয়ন হয়নি। আ’লীগ ক্ষমতায় এসে নতুন ইঞ্জিন, বগি ও ষ্টেশন নির্মাণসহ ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। এখন রেলের বাজেট ১৬’শ কোটিরও বেশি। এক কথায়-রেলের উন্নয়ন বিশ্বে রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। আগামী এক বছরের মধ্যে চৌদ্দগ্রামের সকল অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করারও ঘোষণা দেন তিনি।

শনিবার দুপুরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের কনকাপৈত ইউনিয়নের পন্নারা গ্রামে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট ভার্ড কামাল চক্ষু হাসপাতালের উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা এমরানুল হক কামালের সভাপতিত্বে ও উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ভ. ম আফতাবুল ইসলামের পরিচালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন লক্ষীপুর জেলা দায়রা জজ আবুল কাশেম, কুমিল্লা জেলা আ’লীগ নেতা আলী হোসেন চেয়ারম্যান, চৌদ্দগ্রাম পৌর মেয়র মিজানুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এবিএম এ বাহার, রাশেদা আখতার, চৌদ্দগ্রাম ও নাঙ্গলকোট সার্কেলের এএসপি মেহেদী হাসান। এসময় আ’লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

apps