• শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

অবসরে যাওয়া প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কবি কামাল চৌধুরীর হৃদয়স্পর্শী বক্তব্য

প্রকাশ:  ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৩:৩৭ | আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৩:৪১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

আজ থেকে শুরু হয়েছে আমার অবসরকাল। সরকারি চাকুরি জীবনের ৩৪ বছর ২ মাস ৩ দিন অতিবাহিত করে গতকাল বিদায় জানিয়েছি জীবন অভিজ্ঞতার অসাধারণ এক পর্বকে।

যাপিত জীবনের এ সময়ে নতুন পাতার অভিনতুন বসন্ত-উৎসবে নিজেকে আবিষ্কার করেছি—তেমনই অনুভব করেছি ঝরাপাতার বহুশ্রুত মর্মর। এভাবেই পেরিয়েছি চড়াই-উৎরাই, আলিঙ্গন করেছি সময়ের অনুকূল ও বিপ্রতীপ কোলাহলকে ।এ জগতে কিছুই হারায় না—স্বপ্ন হারায় না, ভালোবাসা হারায় না, সহমর্মিতা হারায় না—দীর্ঘনিঃশ্বাসও হারায় না। ক্ষুদ্র, তুচ্ছ, মহৎ সব অভিজ্ঞতাই আত্মজীবনীর অংশ। সবকিছুর মিলিত প্রবাহই আমাদের জীবন।

সচিবালয়ে, জেলা, উপজেলায়, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যে দায়িত্ব আমি পালন করেছি—সে আমার স্মৃতি-সত্তার অসামান্য ভুবন। এ ভুবনে বাস করে আমি আনত থেকেছি প্রিয় মাতৃভূমির প্রতি—সেবাব্রতে ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অঙ্গীকারে।

সুদীর্ঘ চাকরিকালে সহকর্মী, বন্ধু, শুভার্থীজনের বিপুল সমর্থন, সহযোগিতা ও সহমর্মিতা পেয়েছি যারা আমার প্রাত্যহিকতায় যোগ করেছেন দূরবিস্তারি আলো। তাদের সকলকে জানাই সকৃতজ্ঞ ধন্যবাদ।

আমার বিশেষ কৃতজ্ঞতা বাঙালির স্বপ্ন ও আকাক্ষার প্রতীক মানুষ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি। তাঁর অধীনে আমি সচিব, তথ্য মন্ত্রণালয়; সচিব, শিক্ষা মন্ত্রণালয়; সচিব ও পরবর্তীকালে সিনিয়র সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবের দায়িত্ব পালন করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতো প্রাজ্ঞ ও সাহসী রাষ্ট্রনেতার অধীনে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি নিজেকে পরম সৌভাগ্যবান ভাবি।সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ও শীর্ষ পদে পদায়নের মাধ্যমে আমার প্রতি বিশ্বাস ও আস্থা স্থাপন করে তিনি আমাকে সম্মানিত ও গৌরবান্বিত করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জানাই বিনীত শ্রদ্ধা।

নিস্তরঙ্গ নদী আমাদের স্বপ্ন নয়—স্রোত ও গতিময়তার বহমান উচ্ছ্বাসই আমাদের আরাধ্য। নবপ্রভাতের ঊষালোকে আসুন সবাই মিলে আমাদের উজ্জ্বল আগামীকে উদযাপন করি।

মঙ্গল আলোকের পবিত্র বিভায় সুন্দর হোক আপনাদের জীবন।

শুভ নববর্ষ ২০১৮।

(ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে )

apps