• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

সমাবর্তন ৭ জানুয়ারি

‘তিল পরিমাণ সোনা দিয়ে গড়া ইবির পদক’

প্রকাশ:  ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০১:০৪
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা
প্রিন্ট

আগামী ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সমাবর্তন উৎসবে মেধাবী ৮১ শিক্ষার্থীকে ‘রাষ্ট্রপতির স্বর্ণপদক’ দেওয়া হবে। এই পদকে রয়েছে মাত্র দুই গ্রাম সোনা। তাই অনেক গ্র্যাজুয়েট বলছেন ‘তিল পরিমাণ সোনা দিয়ে গড়া এই পদককে স্বর্ণপদক না বলে স্বর্ণতিলক বলাই ভালো।’ পদক উপ-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এ এইচ এম আক্তারুল ইসলাম জিল্লু জানান, হ্যাঁ দুই গ্রাম সোনাই থাকছে।

এ বছর হচ্ছে ইবির চতুর্থ সমাবর্তন। এতে সভাপতিত্ব করবেন রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য আবদুল হামিদ। অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করবেন শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। সমাবর্তনে ৯ হাজার ৩৭২ জন শিক্ষার্থী স্নাতক, স্নাতকোত্তর, এমফিল ও পিএইডি ডিগ্রি দেওয়া হবে।

ইবির প্রথম সমাবর্তন হয় ১৯৯৩ সালের ২৭ এপ্রিল। ১৯৯৯ সালের ৫ ডিসেম্বর হয় দ্বিতীয় এবং সর্বশেষ ২০০২ সালের ২৮ মার্চ হয় তৃতীয় সমাবর্তন। সবকটি সমাবর্তনে কৃতী ছাত্রদের এক ভরি ওজনের সোনার পদক দেওয়া হয়েছিল। ওই সময় প্রতি ভরি সোনার মূল্য ছিল সাড়ে ৫ হাজার থেকে সাড়ে ৬ হাজার টাকা।

এবার দুই গ্রাম সোনা পদক দেওয়া হলেও প্রতিটি পদকের মূল্য দাঁড়াবে ৮৮৮০ টাকা। বর্তমানে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার ব্যয় বাড়লেও গ্র্যাজুয়েটদের সম্মানে যে পরিমাণ স্বর্ণের পদক দেওয়া হচ্ছে তা খুবই নগণ্য বলে মনে করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষকরা।

ইবির সিনিয়র এক শিক্ষক জানান, দুই গ্রাম না দিয়ে কমপক্ষে ৬ গ্রাম সোনা দিয়ে পদক বানানো উচিত ছিল।

সমাবর্তন পদক উপ-কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক এ এইচ এম আক্তারুল ইসলাম জানান, আমরা পদক কমিটির পক্ষ থেকে অর্ধ ভরি সোনার পদক দেওয়ার প্রস্তাব করি। কিন্তু স্টিয়ারিং কমিটি দুই গ্রামের অনুমোদন দিয়েছে। এই পদকের একটি নির্দিষ্ট স্থানে দুই গ্রাম সোনা বসিয়ে দেওয়া হবে। এটা একবারে খাঁটি সোনা।

apps