• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

প্লেনেই পাইলট-বিমানবালার প্রেম!

প্রকাশ:  ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০১:৫৮ | আপডেট : ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০২:৫৭
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট

পাইলট-বিমানবালার চুটিয়ে প্রেম ছিল বেশ কিছুদিন ধরে। ‌এবার প্লেনেই প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছেন ওই পাইলট। আকাশে ওড়ার আগে অভিনব এ প্রস্তাব ও পরস্পরের আলিঙ্গনের আনন্দ ছুয়ে গেছে যাত্রীদেরও।

অস্ট্রেলিয়ার স্কাইওয়েস্ট এয়ারলাইন্সের পাইলট জন এমারসন ও বিমানবালা লরেন গিবস নাকি প্রেমে পড়েন আকাশে উড়ন্ত অবস্থায় দায়িত্ব পালনকালেই। তবে যাত্রী বা এয়ারলাইন্সের অন্য কর্মীরা তাদের ডুবে ডুবে জল খাওয়ার খবরটি জানতে পারেন প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার পরই।

আর ঘটনাটির ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর তা দ্রুতই ভাইরাল হয়ে গেছে। হাজারো দর্শক তাদেরকে প্রাণখোলা অভিনন্দন জানাচ্ছেন।

ডেট্রয়েট থেকে ওকলাহোমা শহরগামী ফ্লাইটে যাত্রীদের জন্য বিশেষ চমকটি হঠাৎ করেই উপহার দেন এমারসন। ফ্লাইটটি ছাড়ার আগে মাইক্রোফোনে যাত্রার নিয়ম-কানুন জানিয়ে দিচ্ছিলেন পাইলট। এরপর হঠাৎ করে যাত্রীদেরকে বিমানবালা লরেনকে পরিচয় করিয়ে দেন। এক বছর ধরে সম্পর্কের কথা প্রথমে ফাঁস করে দেন তিনি।

‘এটি লরেন ও আমার জন্য একটি বিশেষ দিন। আজ আমাদের বার্ষিকী এবং সে আমাদের সবচেয়ে ভালো ফ্লাইট অ্যাটেন্টডেন্টদের একজন’- যাত্রীদের জানান এমারসন।

‘আমি এই দিনটিতে আমাদের জীবনের বাকি অংশ জানাতে চাই। আমি তার সঙ্গে আমার জীবনের বাকি অংশ কাটাতে চাই’- পকেট থেকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার জন্য আগেই ‍এনে রাখা একটি রিং বের করে দেওয়ার আগে যোগ করেন তিনি।

তারপরই এমারসন হাঁটু গেড়ে পাণিপ্রার্থী হন লরেনের।

প্রেমিকের কাছ থেকে এমন সারপ্রাইজ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে প্রস্তাবটি লুফে নেন অভিভূত প্রেমিকা। আনন্দে আত্মহারা লরেন বারবার এমারসনকে চুম্বন করতে থাকেন।

প্রেমিক-প্রেমিকার এ আবেগঘন উচ্ছ্বাসকে করতালি দিয়ে স্বাগত ও অভিনন্দন জানান যাত্রীরা। ‘হ্যাঁ!, আপনারা সুখী দম্পতি হবেন। এ ঘটনা স্মরণীয় ও চিত্তাকর্ষক’- বলেন তারা।

সুন্দর প্রস্তাবের ওই ভিডিওটি তার নতুন রিংটির ছবির সঙ্গে পোস্ট দিয়ে লরেন গিবস বলেন, ‘গতরাতে একটি প্লেনে, যাত্রীদের সামনে, আমার জীবনের সবচেয়ে ভালো বন্ধু ও সহজতম মানুষটিকে পেয়েছি!’

ফেসবুকে শেয়ারের পর ভিডিওটি ১ লাখ ১৮ হাজারেরও বেশিবার দেখা হয়েছে এবং কমেন্টস্‌ করেছেন ৩ হাজার ৬০০ জন।

‘অভিনন্দন, এটি একটি চমৎকার প্রস্তাব ও চমৎকার আংটি!’- বলেন এক ফেসবুক ব্যবহারকারী। অন্য আরেকজন বলেন, ‘অভিনন্দন! এটিই সবচেয়ে চূড়ান্ত প্রস্তাব!’।