Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫
  • ||

যে শাস্তি পেলেন অনৈতিক কাজে ধরা খাওয়া ঢাবির সেই শিক্ষিকা

প্রকাশ:  ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:১৮
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

নৈতিক স্খলনের দায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এডুকেশনাল অ্যান্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগের প্রভাষক উম্মে কাউসার লতাকে বিভাগ থেকে এক বছরের জন্য সকল অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম হতে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। দুই দুইবার অন্য আরেকটি বিভাগের এক শিক্ষকের সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ ওঠায় তার বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার এডুকেশনাল অ্যান্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগের অ্যাকাডেমিক কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ওই বিভাগের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. মেহতাব খানম।

এর আগে গত ২৯ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের ৩০৪৯ নম্বর কক্ষ থেকে তালাবদ্ধ অবস্থায় উম্মে কাউছার লতাকে উদ্ধার করা হয়। ওই কক্ষটি মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আকিব-উল-হকের।

এ ঘটনার পর আকিব উল হকের স্ত্রী ও ঢাবির সাবেক ছাত্রী তাহমিনা সুলতানা ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছুটির দিনে বিভাগীয় কক্ষে শিক্ষা চর্চার পরিবর্তে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগ করে এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, এডুকেশনাল ও কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ ও মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান বরারব আবেদন করেন।

তাহমিনা সুলতানার ওই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার এ ব্যবস্থা নিল এডুকেশনাল ও কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ।

উল্লেখ্য, এর আগেও একই কক্ষ থেকে ওই দুই শিক্ষককে একই অবস্থায় আটক করেছিলেন আকিবের স্ত্রী।

apps