• মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
  • ||

ঢাবির তালাবদ্ধ শিক্ষিকাকে অব্যহতি

প্রকাশ:  ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১৭:৪৭
ঢাবি প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এডুকেশনাল ও কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগের প্রভাষক উম্মে কাউসার লতাকে ‘মূল্যবোধের অবক্ষয়ের’ কারণে এক বছরের জন্য সকল একাডেমিক কার্যক্রম হতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার ওই বিভাগেরে একাডেমিক কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিভাগের চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. মেহতাব খানম বুধবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ৩০ ডিসেম্বর শনিবার ওই শিক্ষিকাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আকিব উল হকের কক্ষ হতে তালা ভেঙে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আকিব উল হকের স্ত্রী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রী তাহমিনা সুলতানা ছুটির দিনে বিভাগীয় কক্ষে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত হওয়ার অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, এডুকেশনাল ও কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ এবং মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান বরাবর শাস্তির আবেদন করেন।

বিভাগের চেয়ারম্যান বরাবর অভিযোগে মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আকিব উল হকের স্ত্রী লিখেন, ওই শিক্ষিকা ছাত্রী অবস্থায় আমার স্বামীকে পছন্দ করতো। তখন আমার স্বামী তাকে এভয়েড করেছিলো। কিন্তু কলিগ হওয়ার কারণে এখন রুমে এলেও এভয়েড করতে পারে না। তবে একটা গবেষণা করার সুবাদে আমার স্বামীর কাছে চলে আসে। তখন আমার স্বামী তার কাছে পারিবারিক কিছু বিষয় শেয়ার করে। এতে ওই শিক্ষিকা কিছুটা দুর্বলতা খুঁজে পায় এবং ট্রিটমেন্টের নাম করে আমার স্বামীর সাথে আরো ঘনিষ্ঠ হয়। এক পর্যায়ে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।

আমরা যা জানি, সাধারণ মানুষ আপনারা যারা মানসিক স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করেন, তারা যে সেবা নেয়, তার দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে নিজের অর্পূ্ণ ইচ্ছা পূরণ করার সুযোগ করে নেওয়া অথবা নিজের চাহিদা পূরণের জন্য নিজের গাইড করে নেওয়া আপনাদের সেবাদানের নৈতিকতার বিরুদ্ধে। তাই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এই ব্যবস্থা নিলো এডুকেশনাল ও কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগ কর্তৃপক্ষ।

 

/তুহিন/