• রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

স্বামীকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশ:  ০৫ জানুয়ারি ২০১৮, ২১:৩৬
আর্ন্তজাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে বিয়ের আগে হবু জামাইয়ের সাথে কথা বলায় অনার কিলিং’র শিকার হয়েছেন এক নারী।সিন্ধুর ঘোটকি শহরের কাছেই নায়ী ওয়াহি গ্রামে নাজিরান নামের ওই তরুণী তার হবু বর শহীদের সাথে কথা বলার সময় মেয়ের পক্ষের চাচা ঘটনাস্থলে নাজরিনকে গুলি করে।

প্রতিবছর পাকিস্তানে পরিবারের অমতে প্রেম, বিয়ে করাসহ নানা ঘটনায় শত শত নারীকে পরিবারের ঘনিষ্ঠ লোকজনের হাতেই এভাবে ‘অনার কিলিং’-এর শিকার হতে হয়। পাকিস্তানের এক্সপ্রেস নিউজ এজেন্সি জানায়, ‘অনার কিলিং’ এর শিকার নারী হত্যকারীর চাচাত বোন।

পুলিশ জানায়, ঘটনার পর মেয়ের চাচার পরিবারের সন্দেহভাজন দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে প্রাধান আসামীকে এখনও খোঁজা হচ্ছে।

তবে পাকিস্তানে পরিবারের সম্মান রক্ষার্থে (অনার কিলিং) এমন হত্যাকাণ্ডের বেশিরভাগ সময় প্রধান শিকার নারীরাই। গত মাসে রাওলাপিণ্ডিতে এক ভাই নিজের বোন আর তার স্বামীকে গুলি করে হত্যা করে পরিবারের সম্মতি ছাড়া কথা বলায়। নভেম্বর মাসে সিন্ধু প্রদেশে নববিবাহিত এক দম্পতি শিকার হয় অনার কিলিংয়ের।

এক প্রতিবেদনে উঠে আসে, এই হত্যাকাণ্ডের শিকার বেশইরভাগ নারী তার পরিবারের কাছের মানুষ দ্বারা হয়। পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশন (পিয়ারসিপি) বলছে, গত দশকে পাকিস্তানে ৬৫০ জনকে অনার কিলিং করা হয়েছে। তবে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে জানিয়েছে মানবাধিকার কমিশন।