• শনিবার, ২৬ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
  • ||

শিক্ষাখেকো মোতালেবের বেতন ২৮ হজার, বাড়ি করেন ৫ কোটি টাকায়

প্রকাশ:  ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৮:১৮ | আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১৮:২৬
উৎপল দাস
প্রিন্ট
শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদের পিও মোহাম্মদ মোতালেব হোসেন নিখোঁজের দুইদিন পর আইনশৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ হেফাজতে বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। তৃতীয় শ্রেনীর একজন কর্মচারী হিসেবে ২০০৯ সালে শিক্ষামন্ত্রী তাকে পারসোনাল অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেন। এরপর থেকেই জিপিএ ফাইভ বাণিজ্য, বিভিন্ন স্কুল-কলেজের নিবন্ধন, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারদের বদলী, সরকারি-বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকদের বদলী বাণিজ্য আর মন্ত্রণালয়ে টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ করে অঢেল বিত্তবৈভবের মালিক হয়েছেন। নানা মহলে এখন প্রশ্ন উঠেছে, কে এই শিক্ষাখেকো মোহাম্মদ মোতালেব?

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঝালকাঠির নলছিটিতে মোতালেবের পরিবার বিএনপি-জামায়াত শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হলেও তার পিতা একজন সাধারণ কৃষক। তার এক দুলাভাই মিরপুর এলাকার একজন যুবদল নেতা।   

যদিও শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন তার পিও দুর্নীতিবাজ কিনা তিনি তা জানেন না। এনিয়ে তার বক্তব্য প্রশ্নবিদ্ধ হয়নি তবে নানা রহস্যেও জন্ম দিয়েছে। একজন পারসোনাল অফিসার হিসেবে মোতালেব নয় বছর ধরে মন্ত্রীর ছায়ায় থেকে যে ক্ষমতার দাপট দেখিয়েছেন যে বিত্তবৈভব গড়েছেন তা ছিল ওপেনসিক্রেট। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঘুষবাণিজ্যের এই বরপুত্র নিখোঁজ হলে শিক্ষা মন্ত্রী তার সন্ধান করেন।

অনেকে মনে করেন আইনশৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদে একের পর এক থলের বিড়াল বেরিয়ে আসবে।  মোতালেব বসিলায় পাঁচতলার আলিশান বাড়ি তৈরির কাজ শুরু করেছেন। অভিযোগ রয়েছে এখানে জঙ্গীদের আনাগোনা ছিল। জঙ্গীদের অবৈধ অর্থের পৃষ্টপোষকতাও দিয়েছেন। উল্লেখ্য কিছুদিন আগেই শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এক সভায় মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তা ও মন্ত্রীদের ঢালাওভাবে চোর বলেছিলেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করে জানা গেছে, দ্বিতীয় শ্রেণির কর্মকর্তা হিসেবে ১০ম গ্রেডে সরকারি বেতন পেতেন শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মোতালেব হোসেন। তার মূলবেতন ২৮ হাজার ১০০ টাকা। বাড়িভাড়াসহ বিভিন্ন খাতে কেটে নেওয়ার পর বর্তমানে মাসে মোট ১৩ হাজার ৮৮ টাকা উত্তোলন করেন তিনি। এ কারণে তার এমন ৫ কোটি টাকার ভবন নির্মাণ বিস্ময়কর বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই। 

/ইউডি/