• শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
  • ||

দেড় যুগ পর সম্মেলন হল, কমিটি হল না!

প্রকাশ:  ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ০০:৩৮ | আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ০১:১০
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট
দেড় যুগ পর মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন হলেও কমিটি হল না। কমিটি ঘোষণা ছাড়াই সম্মেলনস্থল ত্যাগ করলেন অতিথিরা, সাথে সম্মেলনের ইতি টানলেন আয়োজকবৃন্দ। এতে অনেকটা হতাশ হতে দেখা গেছে সম্মেলস্থলে আসা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের।

একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, শিগগিরই মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের কমিটি কেন্দ্র থেকে ঘোষণা হবে। এজন্য কমিটি ঘোষণা না করেই শেষ করতে হয়েছে মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন।

গত ২০ বছর ধরে সম্মেলনবিহীন চলছিল এ জেলার ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ড। গেল ২০ বছর যাবৎ কেন্দ্র থেকে দলীয় পেডে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জেলা ছাত্রলীগের কমিটি জানিয়ে দেওয়া হত।

মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের আজকের সম্মেলনকে ঘিরে অনেক আশা ছিল। কিন্তু কমিটি না দিয়েই ঢাকা চলে গেছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইনের নেতৃত্বে আসা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

গত বছরগুলোতে যেভাবে কেন্দ্র থেকে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জেলা ছাত্রলীগের কমিটি চাপিয়ে দেয়া হয়েছে এবারও তাই হবে বলে হতাশা প্রকাশ করেন জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে জেলা ছাত্রলীগের কয়েকজক নেতাকর্মী বলেন, সম্মেলনকে নিয়ে আমাদের অনেক স্বপ্ন ছিল। আশা ছিল একটি সুন্দর কমিটি উপহার পাবো। কিন্তু কমিটি ঘোষণা ছাড়াই সম্মেলন শেষ করায় আমরা হতাশ।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ১১ হাজার রাজাকারকে মুক্তি দিয়েছিলেন। এর ধারাবাহিতায় বেগম জিয়াও রাজাকারদের প্রতিষ্ঠিত করার কাজ করেছেন।

এর আগে বেলা ১১টার দিকে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে দীর্ঘ দুই দশক পর অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

উদ্বোধনী বক্তব্যে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন বলেন, ছাত্রলীগ যেমন পড়ার টেবিলকে ভালোবাসে, তেমনি মানুষের প্রয়োজনে রাজপথে নেমে আসে। বিএনপি-জামায়াত ও ছাত্রদল-ছাত্রশিবিরকে মোকাবেলার জন্য রাজপথে থাকবে ছাত্রলীগ।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন- স্থানীয় সংসদ সদস্য সায়রা মহসিন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমদসহ জেলা ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

এক প্রশ্নের উত্তরে কমিটি ঘোষনা না করার প্রসঙ্গে জেলা ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সভাপতি আসাদুজ্জামান রনি বলেন, ‘নতুন কমিটি ঘোষণা করতে না পারাকে ব্যর্থতা বলা যাবে না, আজ রাতের মধ্যেই কমিটি ঘোষণা হতে পারে।