• শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

সৌদিতে না গিয়ে, দেশে ভিক্ষা করা অনেক ভালো

প্রকাশ:  ২৮ জুন ২০১৮, ২১:৫৩
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

যৌন ও শারীরিক নিপীড়ন থেকে বাঁচতে সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের সেফ হোমে অবস্থান নেওয়া ২৩ নারী দেশে ফিরেছেন। বৃহস্পতিবার (২৮ জুন) বিকালে তারা দেশে ফেরেন। এ নিয়ে গত এক সপ্তাহে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরেছেন ১২০ জন নারী শ্রমিক।

ইমিগ্রেশন সূত্র জানিয়েছে, বিকাল ৪টায় বিজি-৪০ এয়ারক্রাফটে করে তারা দেশে ফিরেছেন।

ফিরে আসা নারী গৃহকর্মীরা জানিয়েছেন, সৌদি আরবে গৃহকর্মীর কাজ করতে গিয়ে তিক্ত অভিজ্ঞতা আর নির্মম নির্যাতনের শিকার হন তারা। নির্যাতন থেকে বাঁচতে তারা সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের সেফ হোমে অবস্থান নেন। সেখান থেকে তারা দেশে ফেরেন।

দেশে ফিরে নির্যাতনের স্মৃতিচারণ করেন ময়মনসিংহের রহিমা আক্তার (ছদ্মনাম)। তার বয়স ১৬ বছর।

নির্মম নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, কোনো মেয়ে যেন আর সৌদি আরবে না যান। দেশে ভিক্ষা করে খাওয়া অনেক ভালো। রিক্রুটিং এজেন্সি চলতি বছরের জানুয়ারিতে সৌদি আরবে গৃহকর্মীর কাজে পাঠান। কিন্তু নিয়োগকর্তার নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে আশ্রয় নেয় বাংলাদেশ দূতাবাসের সেফ হোমে। সেখান থেকে বৃহস্পতিবার ২৩ জনের সঙ্গে তিনিও দেশে ফেরেন।

রহিমার সঙ্গে দেশে ফেরা অন্যান্য নারীরাও সৌদি আরবে গিয়ে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তারা বাধ্য হয়ে দেশে ফিরে এসেছেন।

/পি.এস

apps