• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা, যুবলীগ সভাপতি বহিষ্কার

প্রকাশ:  ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৫৮
সাভার প্রতিনিধি
প্রিন্ট

নিজ স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে সাভার উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সেলিম মণ্ডলকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। সোমবার (২০ আগস্ট) বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হুরুনুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠায় দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। এছাড়াও এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট যুবলীগের অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাদেরকেও পর্যায়ক্রমে বহিস্কার করা হবে। অপরাধী যেই হোক না কেন তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে সেলিম মন্ডল গত দুই আগষ্ট রাতে ২য় স্ত্রী আয়শা আক্তার বকুলকে (২৫) সিঙ্গাইর এলাকায় নিয়ে গিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করে। পরের দিন সকালে পুলিশ একটি কলাবাগান এলাকায় নিহতের লাশ উদ্ধার করে। পরে গতকাল রবিবার (১৯ আগষ্ট) রবিবার দুপুরে নিহতের পরিবার থানায় গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

এছাড়াও নিহতের ভাই উজ্জল অভিযোগ করে বলেন, পাঁচ বছর আগে তার বোনের সঙ্গে সেলিম মণ্ডলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে সে সাভার পৌর এলাকার ইমান্দিপুর মহল্লার ভাড়া বাড়িতে বসবাস করছে। এদিকে পরিবারের অমতে যুবলীগ নেতা দ্বিতীয় বিয়ে করায় তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে সেলিম মণ্ডলের সঙ্গে তার বোন আয়েশা আক্তারের পারিবারিক কলহ লেগেই থাকতো। দেড় মাস আগে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে ওই যুবলীগ নেতা স্ত্রীকে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়। পরে সে সিঙ্গাইর এলাকার একটি নির্জন স্থানে নিয়ে তার স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

এরই সুত্র ধরে প্রায়ই সেলিম মন্ডলের সাথে তার বোন আয়েশা আক্তার বকুলের মধ্যে পারিবারিক কলেহ লেগেই আসছে। এছাড়াও গত দেড় মাস আগে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে স্ত্রীকে প্রাণে মেরে ফেলারও হুমকি দেয় সেই যুবলীগ নেতা। পরে সিঙ্গাইর বায়রা এলাকায় একটি নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে স্ত্রীকে প্রেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করে তিনি।

এ ব্যাপারে সিঙ্গাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার ইমাম হোসেন বলেন, তরুণীর অগ্নিদগ্ধ লাশটি তার পরিবার সনাক্ত করেছেন। এরই সূত্র ধরে সাভারের বিরুলিয়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এছাড়া ডিএনএ পরীক্ষার পর বিষয়টি আরও স্পষ্ট হওয়া যাবে।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় যুবলীগ নেতার ভাই জুয়েল মণ্ডলকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে অন্য আসামিদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সাভার,যুবলীগ
apps