• রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

নামের মিল থাকায় বিভ্রান্তি

এই এসপি মিজান সেই ‘এসপি মিজান’ নন

প্রকাশ:  ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:১৫ | আপডেট : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:২৬
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

অবৈধ ভাবে বিপুল পরিমাণ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সম্প্রতি ঢাকা রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সের এসপি মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী সালমা আক্তার ওরফে নিপা মিজানের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

গত বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর তেজগাঁও থানায় মামলা দুটি করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মো. ফারুক আহমেদ।

সেদিন বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশিত হয়। তবে নামের মিল থাকায় কিছু কিছু সংবাদমাধ্যমে ভুলবশতঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিজানুর রহমানের ছবি ব্যবহার করা হয়। এ নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। এছাড়া দ্রুত ভুল সংশোধন করারও আহ্বান জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এসপি মিজানুর রহমান।

প্রসঙ্গত, ঢাকা রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সের এসপি মিজানুর রহমান যেখানে নেতিবাচক কর্মকাণ্ডের জন্য সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন, সেখানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিজানুর রহমান বিভিন্ন সময় সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন তার ইতিবাচক কর্মকাণ্ডের জন্য।

সরকারি শিশু পরিবারের ‘অনাথ’ হাবিবা আক্তারের অভিভাবকত্ব গ্রহণ করে তার রাজকীয় বিয়ে দিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছিলেন পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিজানুর রহমান। তার এ উদ্যোগ নিজ বাহিনীতেও তাকে করেছে আলোচিত-প্রশংসিত। হাবিবার বিয়ের পর দেশ-বিদেশের অসংখ্য মানুষ তাকে স্যালুট জানিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন।

হাবিবার পর এসপি মিজানুর রহমান পাশে দাঁড়ান প্রতিবন্ধী শিশু মৌসুমির। দুর্ঘটনায় পঙ্গু হয়ে যাওয়া ৯ বছরের শিশু মৌসুমিকে সুস্থ করার দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নেন তিনি।

এছাড়া জেলা শহরের নয়নপুর গ্রামের দিনমজুর আলাউদ্দিনকে স্বাবলম্বী করার উদ্যোগ নেন তিনি। এমন মানবিক সব কর্মকাণ্ডের কারণে এখন অনেকেই এসপি মিজানুর রহমানকে উপাধি দিচ্ছেন ‘মানবতার ফেরিওয়ালা’ হিসেবে।

এসব নিয়ে এর আগে পূর্বপশ্চিমে ‘এসপি মিজানের মানবসেবার গল্প’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছিল।

-একে

এসপি মিজান