• মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ১ কার্তিক ১৪২৫
  • ||

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের শিরোপা ফিলিস্তিনের

প্রকাশ:  ১২ অক্টোবর ২০১৮, ২০:৫৫
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে তাজিকিস্তানকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতলো ফিলিস্তিন।

নির্ধারিত সময়ে কোনো দল গোল না করতে পারায় অতিরিক্ত সময়ে গড়ায় খেলা। কিন্তু অতিরিক্ত সময়েও উভয় দলই গোলমুখ খুলতে ব্যর্থ হলে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। আর তাতেই ম্যাচ জিতে নেয় ফিলিস্তিন।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গোল্ডকাপের ফাইনাল ম্যাচটি শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাঠে বসে খেলা উপভোগ করেন।

খেলার শুরু থেকেই সমানতালে খেলেছে দু’দল। সাত মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে তাজিকিস্তানের ফরোয়ার্ড জাহাঙ্গীরের শট বারের উপর দিয়ে চলে যায়। এরপর থেকে বেশ কিছুটা সময় আক্রমণের করে তাজিক শিবিরে কাঁপন ধরায় ফিলিস্তিনের খেলোয়াড়রা।

ম্যাচের ২৩ মিনিটে ফিলিস্তিনের বিএ রশিদের পাসে বল পেয়ে আবারো বক্সে ঢুকে জোরালো শট নেন মুসা। তাজিকিস্তানের গোলকিপার রুস্তম ঝাঁপিয়ে পড়ে কর্নারের বিনিময়ে এ যাত্রায় দলকে রক্ষা করেন। মিনিট দুয়েক পর বল নিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন খালিদ সালেম। তাকে ঘিরে ধরেন প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডাররা। তবে দমে না গিয়ে বল নিজের নিয়ন্ত্রণে রেখে ডান পায়ের শট নেন খালিদ। বল বাঁ পোস্টে লেগে ফেরত আসে।

২৭ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে ইসলাম বর্তনের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৩৪ মিনিটে ফিলিস্তিনের সামেহ মারাবাহকে মারাত্মক ফাউল করেন ফাতখুল্লুয়েভ। মুখে ঘুষিও মারেন। একপর্যায়ে দুই দলের ফুটবলাররা হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। রেফারি ফিলিস্তিনের রশিদকে হলুদ এবং লাল কার্ড দেখান তাজিকিস্তানের অধিনায়ক ফাতখুল্লুওয়েভকে। ফলে দশজনের দলে পরিণত হয় তাজিকিস্তান।

৫৭ মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে ফিলিস্তিনের আবদুল্লাহ জাজেরের শট ছিল নিশ্চিত গোল। কিন্তু হাত উঁচিয়ে বল ফিস্ট করে কর্নারের বিনিময়ে দলকে এ যাত্রায়ও রক্ষা করেন তাজিক গোলকিপার। পরের মিনিটে সুযোগ হাতছাড়া হয়েছে তাজিকিস্তানেরও। বক্সে বল পেয়ে শট নেন তারসুনভ কমরণ। কিন্তু অল্পের জন্য জালে জড়ায়নি বল।

৬০ মিনিটে বক্সের একেবারে কাছেই কমরনকে ফাউল করেন ফিলিস্তিনের জাহাঙ্গীর। ফ্রি কিক পায় তাজিকিস্তান। তবে সহজ সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি ডিফেন্ডার আসরুরভ।

৭৬ মিনিটে তাজিকিস্তানের নাজারুভের শট প্রথমে বারে লেগে ফেরত আসে। ফিরতি বলে আবারো শট নিয়ে বল জালে জড়িয়েছিলেন এই ডিফেন্ডার। কিন্তু অফসাইডের কারণে গোলটি বাতিল হয়।

নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ম্যাচ ছিলো গোলশূন্য। ফলে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে।

-একে

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ