• বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

প্রথমে অস্ত্র দেখিয়ে, পরে ভিডিও করে ধর্ষণ!

প্রকাশ:  ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ২০:৪৩ | আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ২০:৪৬
গাইবান্ধা প্রতিনিধি
প্রিন্ট

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় স্বামী বাইরে থাকায় এক গৃহবধূকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আজ (১৫ অক্টোবর) সোমবার দুপুরে স্থানীয় থানায় ওই গৃহবধূ মামলা করেছেন।

মামলায় আসামি করা হয়েছে গোবিন্দগঞ্জের কামারদহ ইউনিয়নের বার্ণা চন্দ্রশিখর (মোগলটুলি) গ্রামের বাসিন্দা আবদুল ওয়াহেদ ওরফে ডিপটি মিয়াকে (৪৭)।

মামলা অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, এর আগে ওই গ্রহবধূকে কুপ্রস্তাব দেন ডিপটি মিয়া। এতে রাজি না হলে ডিপটি মিয়া অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। এ সময় ধর্ষণের ভিডিওচিত্র মোবাইল সেটে ধারণ করা হয়। এরপর বিভিন্ন সময়ে ভিডিওটি তার স্বামীকে দেখানোসহ ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। এরই একপর্যায়ে গত শনিবার দুপুরে ওই নারীর ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন।

ওই গৃহবধূ জানান, ধর্ষণের সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে ডিপটিকে হাতেনাতে আটক করে। পরে বিষয়টি জেনে তার পক্ষের ১৫ থেকে ২০ জনের স্বশস্ত্র যুবকের দল তার ঘরের দরজা ভেঙে ডিপটিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এতে বাধা দিতে গিয়ে তাদের মারধরে রাজা মিয়া, মোজাম ও লোকমান নামে তিনজন আহত হন।

এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য কয়েকবার ডিপটির ব্যবহৃত মুঠোফোন নম্বরে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এ বিষয়ে এজাহার পাওয়ার কথা স্বীকার করেন গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান। তিনি বলেন, ধর্ষণের বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এসএফ

গাইবান্ধা
apps