• সোমবার, ২৮ মে ২০১৮, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
  • ||

সেই ক্রিকেটার এনামুল হক জুনিয়র এখন কোথায়

প্রকাশ:  ০৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১৪:২২
সম্রাট কবির
প্রিন্ট
তিনি বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল স্পিনারদের একজন। তার হাত ধরেই এসেছে প্রথম টেস্ট জয়।ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেটের প্রতি নেশা, ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা তাকে গভীর ভাবে টেনেছে।তার সাফল্য যাত্রা তাকে আর থামাতে পারেনি।

২০০৩ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সেই মোহম্মদ রফিকের ইনজুরিতে সুযোগটা আসে।হোয়াটমোরের পছন্দে দলে ডাক পান এনামুল হক জুনিয়র।তারপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। ওই সময়ই ইংল্যান্ডের সাথে বিসিবি একাদশের হয়ে ৪ উইকেট নিয়ে আলোচনায় আসেন এ বাহাতি স্পিনার।

ওই বছরই অভিষেক হয় তার। জিম্বাবুয়ের সাথে প্রথমবার খেলতে নেমেই যা করলেন তা অবিশ্বাস করার মতো। মাত্র ১৮ বছর বয়সেই একাই ধসিয়ে দিলেন জিম্বাবুয়েকে। দুই ইনিংসে (৭ ও ৫) মোট ১২ উইকেট নিয়ে টেস্ট জয়ের নায়ক তিনি।

এরপর প্রায় নিয়মিতই দলের হয়ে খেলতে থাকেন সেই সাথে অব্যাহত থাকে তার পারফরম্যান্সও। কিন্তু হঠাৎ ২০১০ সালে দল থেকে বাদ পরেন এনামুল তবে তাকে দমিয়ে রাখা যায়নি।

২০১১ সালে ঘরোয়া লিগে পূরন করেন তার ক্যারিয়ারের ৩০০ উইকেটের মাইলফলক। সেই সাথে জাতীয় দলে ফেরার জোড়ালো চেস্টা সাথে পারফরম্যান্স অব্যাহত থাকে।

২০১২ সালের প্রথম বিপিএলে চিটাগাং কিংসের হয়ে মাঠে নামেন এনামুল জুনিয়ার। প্রথম দিকে দলের হয়ে সুযোগ না পেলেও পরবর্তিতে সুযোগ পেয়ে নিজেকে প্রমান করেন তিনি। ৯ ম্যাচে দারুন ইকোনোমিতে নিয়েছেন ১৩টি উইকেট!

এমন পারফরম্যান্স তাকে আর দলে না নিয়ে পারেননি তখনকার নির্বাচকরা। ডাক পেয়ে যান ২০১২ সালের এশিয়া কাপে। কিন্তু দলে আর স্থায়ী হতে পারেন নি। এনামুল সবশেষ ২০১৩ সালে নিউজিল্যান্ড সিরিজে স্কোয়াডে ছিলেন। এরপর ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করলেও জাতীয় দলে আর ফেরা হয়নি।

জাতীয় দলের হয়ে এনামুলের বোলিং ক্যারিয়ার :
১৫ টেস্টে ২৬ ইনিংসে ৪০ গড়ে নিয়েছেন ৪৪ উইকেট।
১০ ওয়ানডেতে ৩০ গড়ে নিয়েছেন ১৪ উইকেট।

/সম্রাট

আছি কি নেই, জানার অপেক্ষায় ধবন ও স্টেন