• বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫
  • ||

বাঘায় ফাঁকা ব্যালট বাক্স, আ’লীগের নির্বাচন কার্যালয় ঘেরাও

প্রকাশ:  ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৫:৩৩
রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রিন্ট

নির্বাচনের তিনদিন পরে রাজশাহীর বাঘায় দুটি ফাঁকা ব্যালট বাক্সকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কার্যালয় ঘেরাও করেছে আওয়ামী আ’লীগের নেতাকর্মীরা। এ নিয়ে নির্বাচন কার্যালয় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করেছে। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন।

আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের দাবি, তাদের মেয়র প্রার্থী আক্কাস আলীকে পরাজিত করাতেই ওই দুটি ব্যালট বাক্স ছিনতাই করা হয়। এর সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা জড়িত। নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের কারচুপির কারণে আওয়মী লীগের প্রার্থী পরাজিত হয়েছে।

বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল জানায়, তিনি সাধারণ মানুষের মুখে শুনেছেন। নির্বাচন কার্যালয়ে অনেক নেতাকর্মীরা উপস্থিত হয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রিটাির্নং কর্মকর্তা মুজিবুল আলম জানান, মূর্শিদপুর স্কুলের কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিল দুই হাজার ৫৯১ জন। সেখানে সাতটি বুথ ছিল। সেই কেন্দ্রে পিজাডিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিলো জনতা ব্যাংকের ম্যানেজার রেজাউলকে।

তিনি বলেন, পিজাডিং কর্মকর্তা রেজাউল ভোটের আগে ও পরে রিটাির্নং কর্মকর্তা মুজিবুল আলমকে জানায়। এই কেন্দ্রে একটি ব্যালট বাক্স বেশি আছে। কোনো ব্যালট বাক্স পরিবহনসহ বিভিন্ন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হলে সেটি তিনি কাজে লাবেন। কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ থেকে গননার পরে তারা সবাই কেন্দ্র ত্যাগ করে। তবে ভুলবসতো পিজাডিং কর্মকর্তা রেজাউল ব্যালট বাক্সটি রেখে আসেন। এ বিষয়টি তিনি রিটারনিং কর্মকর্তা মুজিবুল আলমকেও জানান।

তবে মূর্শিদপুর স্কুলের কয়েকজন শিক্ষক জানান, ব্যালট বাক্স দু'টি অতিরিক্ত ছিল। তাই আলাদা করে রাখা হয়েছিল। সেই দুটি বাক্স ব্যবহার করা হয়নি। তবে নির্বাচন শেষে বাক্স দুটি ভুলে নিয়ে জাননি কর্মকর্তারা। রোববার সকালে স্কুল খোলার পরে বাক্স দুটি পাওয়া যায়। পরে নির্বাচন অফিসে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ ডিসেম্বর বাঘা পৌর সভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাকের কাছে এক হাজার ৫৬৩ ভোটে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বিতর্কিত নেতা আক্কাস আলী পরাজিত হন

apps