• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

ট্রেন চালকের দক্ষতায় বেঁচে গেলো তিনটি প্রাণ

প্রকাশ:  ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৫:৪৩
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট

কুশিয়ারা নদীর উপর রেল সেতুতে ঘুরতে আসা লোকজন সেলফিতে মগ্ন হয়ে প্রাণনাশের আশংকা বাড়ছে। শনিবার সকালে এরকম দুইজন যুবক হাটতে হাটতে রেল সেতুতে উঠে পড়েন। সেতুতে সেলফি তুলতে গিয়ে জীবনের কথা ভূলে যান। তাদের পিছনে আরেক জন বাক প্রতিবন্ধী উঠেন।

সেতুর উত্তর পাশ থেকে কালনী এক্সপ্রেস হর্ন দিলে তাদের পিলে চমকে উঠে! কিন্তু না আছে কোনো পারে যাবার সুযোগ। অবস্থা দেখে ফেঞ্চুগঞ্জ বাজারের লোকজন তিনটি প্রাণ যাবার আশংকায় আহাজারি শুরু করেন। অদ্ভুত পরিস্থিতিতে থমকে যায় এলাকা! সেতুর তিন লোকও ভয়ে আতংকে স্বাভাবিক হাটাও ভূলে যায়।

কিন্তু তিন প্রাণ বাঁচাতে ঝুকি নেন কালনী এক্সপ্রেসের চালক। সেতুরই তিনি দক্ষতার সাথে ট্রেনে গতি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হোন। মৃত্যুর কাছ থেকে ফিরে আসা তিন লোক বিস্ময়ে স্তব্ধ হয়ে যান! তারা সেতুর দক্ষিণ পার দিয়ে নেমে আসেন। সেতুর নিচে জড়ো হওয়া লোকজন আনন্দিত হয়ে হাততালি দিয়ে কালনীর চালকে ধন্যবাদ জানান। চালক ও হাসিমুখে হাত নাড়ান।

ফেঞ্চুগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী ছালিক আহমেদ বলেন, অহেতুক সেলফি তুলার জন্য জীবনের ঝুকি নেওয়া বোকামি ছাড়া কিছু নয়।

জানা যায়, সেলফিবাজ ছাড়াও সেতু মধ্য অংশে খাচার মত জায়গায় বখাটেরা নিরাপদ গাজা ও জুয়ার আখড়া বানিয়ে নিয়েছে। এসব বন্ধে প্রশাসনের উদ্যোগ নেওয়া জরুরি।