• মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৪
  • ||

শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকার, মাদ্রাসা শিক্ষককে গণপিটুনি

প্রকাশ:  ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২৩:৩৬ | আপডেট : ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ২৩:৪১
জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
প্রিন্ট
চাঁপাইনবাবগঞ্জে গোমস্তাপুরে ৬ বছরের শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকারে ব্যর্থ হয়ে তাকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে। আহত শিশুটিকে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
এঘটনায় এলাকাবাসীর হাতে গণপিটুনির শিকার হয়েছেন ওই শিক্ষক। তাকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার শিশু আকাশ গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর পৌর এলাকার ষ্টেশন হটাৎপাড়ার জামাল উদ্দিনের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার বিকেলে বিশ্বাসপাড়া দারুল উলুম ইসলামীয়া মাদ্রাসার (প্রষাদপুর এতিমখানা) শিক্ষক ওহাব আলী মাদ্রাসার একটি ঘরে ডেকে নিয়ে শিশুটিকে বলৎকারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি শিশুটিকে বেত দিয়ে বেদম মারধর করেন। স্থানীয়রা সন্ধ্যার দিকে রক্তাত্ব অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। খবরটি ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত জনতা শিক্ষক ওহাব আলীকে ধরে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে বলৎকারের চেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শিক্ষক ওহাব আলী। তিনি জানান, পড়া না পারার কারণে শিশুটিকে পিটিয়েছেন। তবে তা ঠিক করেননি বলেও স্বীকার করেছেন তিনি। গোমস্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ শাহিন কামাল জানান, এ ঘটনায় সোমবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত থানায় কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে শিশুটিকে বলৎকার চেষ্টা অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি। এটি রটনা হতে পারে। পড়াশোনা না করায় শিশুটিকে পিটিয়ে আহত করেছেন শিক্ষক এমনটি জানা গেছে।
apps