Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫
  • ||

ব্যাংককে ভারত-পাকিস্তান নিরাপত্তা উপেদেষ্টাদের গোপন বৈঠক!

প্রকাশ:  ০২ জানুয়ারি ২০১৮, ০২:১৯
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট icon
কথিত ভারতীয় গুপ্তচর কুলভূষণ জাদবের স্ত্রী ও মায়ের সঙ্গে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের ‘অশোভন আচরণ’ নিয়ে ভারতীয় মিডিয়া সরগরম ছিল গত কয়েকদিন। ভারতীয় পার্লামেন্টকেও উত্তপ্ত করে তুলেছিল এ ঘটনা।
মোট কথা, সর্বদা তিক্ততায় আবদ্ধ ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্ককে আরো ভারসাম্যহীন করে তুলেছিল তা। তবে অমন ঝঞ্ঝা-বিক্ষুব্ধ সময়েও উভয় দেশের নিরাপত্তা উপদেষ্টারা (ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার্স, এনএসএ) গোপন বৈঠকে বসেছিলেন ব্যাংককে। রবিবার ডন.কম প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে এটা সম্ভবত গত ২৬ ডিসেম্বর ঘটেছে। ওই মিটিংয়ের উদ্দেশ্য ছিল দুই দেশের মধ্যে তার চেয়েও বড় ধরনের কোনো ভুল বোঝাবুঝি বা গুরুতর পরিস্থিতি ঠেকানো। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের বরাতে ডন জানায়, চির বৈরী দুই দেশের নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের ওই বৈঠকে পাকিস্তানের পক্ষে নেতৃত্ব দেন অবসরপ্রাপ্ত লে. জেনারেল নাসির খান জানজুয়া এবং ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন অজিত দোভাল। মিটিংয়ের জন্য নিরপেক্ষ স্থান হিসেবে বেছে নেওয়া হয় থাই রাজধানী ব্যাংকককে। তবে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস দাবি করেছে ওই বৈঠক কুলভূষণ যাদবের মা ও স্ত্রীর ইসলামাবাদ যাওয়া ও পরবর্তী ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কিত ছিল না। ২৬ ডিসেম্বরের ওই মিটিংয়ের দিনতারিখ ঠিক নির্ধারিত হয়েছিল মাসের শুরুতেই। পত্রিকার মতে, বৈঠকের পটভূমি তৈরি হয়েছিল গত ১৮ ডিসেম্বর জেনারেল জানজুয়ার করা এক মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে। পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক এক সম্মেলনে জানজুয়া বলেছিলেন, দক্ষিণ এশিয়ার স্থিতিশীলতা এক ভঙ্গুর ভারসাম্যের ওপর স্থাপিত, তাই এতদঞ্চলে পরমাণু যুদ্ধের ঝুঁকি উড়িয়ে দেওয়া যায় না। এদিকে, ডনের রিপোর্টে পাকিস্তানি নিরাপত্তা সূত্রের বরাতে বলা হয়েছে, ওই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় ২৭ ডিসেম্বর। সূত্র মতে, ওই বৈঠকের পটভূমি ইতিবাচকতা তৈরি করে যার ফলে যাদবের সঙ্গে তার মা ও স্ত্রীর দেখা করার পরিবেশ তৈরি হয়। ডন আরও জানায়, উভয় পক্ষই মিটিংয়ের কথা গোপন রাখার ব্যাপারে একমত হয়। কিন্তু পরে ভারতীয় পত্রপত্রিকায় যখন মিটিংয়ের বিষয়ে চর্চা শুরু হয় তখন পাকিস্তানি পক্ষও মুখ খুলতে শুরু করে। আফগান গোয়েন্দা সংস্থার সহায়তায় পাকিস্তানে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে ভারত- এই অভিযোগ ইসলামাবাদের। অপরদিকে, দিল্লির অভিযোগ কাশ্মিরের জঙ্গিদের মাধ্যমে ভারতে সন্ত্রাসে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে পাকিস্তান।
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত