Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫
  • ||

‘বড় পরিচালকদের কেন যে এত ইনসিকিয়োরিটি!’

প্রকাশ:  ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:১২
বিনোদন ডেস্ক
প্রিন্ট icon
রাজ চক্রবর্তী

টালিউডের জনপ্রিয় নির্মাতা রাজ চক্রবর্তীর সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র ‘অ্যাডভেঞ্চার অব জোজো’ মন জয় করেছে দর্শকদের। ছবিটি রিলিজের পরে রাজের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন দীপান্বিতা মুখোপাধ্যায় ঘোষ। আনন্দবাজার পত্রিকার সৌজন্যে সাক্ষাৎকারটি পাঠকের জন্য তুলে ধরা হল।

প্র: রাজ চক্রবর্তীকে কি অক্সিজেন দিল ‘অ্যাডভেঞ্চার অব জোজো’?

উ: অবশ্যই। ছবি হিট তো বটেই, দর্শকেরও ভাল লেগেছে। এর চেয়ে বেশি আর কী চাই! আমি যে অন্য ধরনের ছবিও বানাতে পারি, এটা বোধহয় প্রমাণ করতে পারলাম। ছবির ট্রেলার রিলিজ়ের পরেই তো সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই শুরু হয়ে গেল, এটা রিমেক বলে! আমার ইন্ডাস্ট্রির সহকর্মীরাই সেটা শুরু করল। কিন্তু এত কিছুর পরেও ছবিটা চলল।

প্র: নাম বলবেন?

উ: নাম বলার দরকার নেই। যারা করেছে, তারা জানে। এরা অন্যের ছবিকে খারাপ বলে নিজের ছবিকে ভাল প্রতিপন্ন করতে চায়।

প্র: আপনি রিমেক ছাড়া অন্য কিছু বানালে তাঁদের সমস্যা হচ্ছে?

উ: একেবারেই। আমি বাচ্চাদের নিয়েও লার্জার দ্যান লাইফ ছবি বানাতে পারি। সাহিত্য নিয়ে ছবি করলে সেটাকে অন্য মাত্রায় নিয়ে যেতে পারি। আর এগুলো হলে যারা ঘরের মধ্যে ছবি বানিয়ে ব্যবসা করছে, তারা সমস্যায় পড়বে। তাই রাজকে ছবি বানাতেই দিও না। আর যদি বানিয়ে ফেলে, তা হলে নেগেটিভ প্রচার শুরু করে দাও। আমরা মুখে বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশের কথা বলি। কারও সামান্য সমালোচনা করে দেখুন। পরমুহূর্তে সে শত্রু হয়ে যাবে।

প্র: সমালোচনা নিতে পারেন?

উ: আমি তো বরাবর সমালোচিত হয়েছি। রিমেক পরিচালক, কপি-পেস্ট পরিচালক, জেরক্স মেশিনের মতো তকমা লেগেছে আমার গায়ে।

আরও পড়ুন: শাশুড়ি ভাল, নাকি বউমা? চোখ রাখুন ‘মুখার্জীদার বউ’-এ

প্র: আচ্ছা, সাহিত্য নিয়ে ছবি বলতে কি ‘টং লিং’-এর কথা বলছেন?

উ: সব মিলিয়েই বলছি। কেন ‘টং লিং’ করতে পারলাম না, কে এর পিছনে আছে তা-ও জানি। এগুলো মানুষ ইনসিকিয়োরিটি থেকে করে। আমি বাবা-মাকে অন্য পরিচালকের ছবি দেখাই। হলে নিয়ে যাই। আর এরা এই সব করে...বড় পরিচালকদের এত ইনসিকিয়োরিটি কেন জানি না।

এদের বুঝতে আমার একটু বেশি সময় লেগে গেল। তবে আমি কাজ দিয়েই জবাব দিতে চাই। আগে যেমন কমার্শিয়াল ছবি করেছি, আর এখন যে আরবান সিনেমা চলছে, তার বাইরে অন্য রাস্তা তৈরি করতে চাই।

প্র: যেমন জিৎ-কোয়েলের ছবি?

উ: অনেকটাই। জিৎ-কোয়েলকে যেমন ছবিতে দেখতে দর্শক অভ্যস্ত, ‘শেষ থেকে শুরু’ তার চেয়ে আলাদা। ওরা কেউ এখানে স্টার নয়, চরিত্র।

প্র: শুভশ্রীকে নিয়ে ছবি করবেন?

উ: প্রস্তুতি চলছে। নিজের প্রোডাকশন থেকেই করছি। মার্চ মাস নাগাদ ফ্লোরে যাব। ঋত্বিক (চক্রবর্তী) আছে। অন্য ধরনের ছবি হবে। অনেক ধরনের কনসেপ্ট নিয়ে কাজ করতে চাই। অন্য প্রযোজক হয়তো সেই ঝুঁকি নেবেন না। ঠিক করেছি, সেগুলো আমিই প্রোডিউস করব আর ডিরেক্টও।

আরও পড়ুন: বিচ্ছেদের গুজব উড়িয়ে পঞ্চম বিবাহবার্ষিকীর ছবি পোস্ট করলেন ভাস্বর

প্র: ‘কাট-মুণ্ডু টু’ কি আর হবে না?

উ: ওটাও করব। কেন সকলে ছবিটা থেকে ব্যাকআউট করল জানি না! কেউ রুদ্রর (রুদ্রনীল ঘোষ) পাশে দাঁড়াতে চাইল না। অভিনয়ে রুদ্র দশ গোল দেবে ভেবে পিছিয়ে গেল সকলে! রুদ্র কিন্তু ছোট চরিত্রেও ফাটিয়ে দিতে পারে। লিড ছাড়া কেউ করবে না বলছে। এ দিকে যে ছবিগুলো করছে, সবই মাল্টিস্টারার!

প্র: শোনা যাচ্ছিল, দেব-জিৎকে নিয়ে আপনি ছবি করতে চলেছেন?

উ: ইচ্ছে আছে। ওরা দু’জনেও একসঙ্গে কাজ করতে চায়। কিন্তু দেব আর জিৎকে একফ্রেমে নিয়ে আসতে পারার মতো বিষয় দরকার।

পিবিডি/ ইকা

টালিউড,অ্যাডভেঞ্চার অব জোজো,রাজ চক্রবর্তী
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত