Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৬ বৈশাখ ১৪২৬
  • ||

মালয়েশিয়ায় বিবাহিত বিদেশিদের ভিসা বাতিলের ঘোষণা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

প্রকাশ:  ১৮ মার্চ ২০১৯, ১৮:৪৯
আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া
প্রিন্ট icon

মালয়েশিয়ায় বিবাহিত বিদেশিদের ভিসা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কাজের ভিসায় এসে সেদেশের নাগরিকদের বিয়ে করলেই ভিসা বাতিল হবে বলে জানালেন ডেপুটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী দাতুক মোহাম্মদ আজিজ জামম্যান। বিয়ে করলে বিদেশী কর্মীদের অস্থায়ী কর্মসংস্থান ভিসা (পিএলকেএস) ঝুঁকি থাকে। তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে যদি আবেদন করে, বিশেষ বিবেচনায় ভিসা দেওয়া যেতে পারে বলে জানালেন তিনি।

ডেপুটি হোম মন্ত্রী দাতুক মোহাম্মদ আজিজ জামম্যান বলেন, বিদেশি শ্রমিকদের জন্য (পিএলকেএস) এই দেশে বিয়ে করার অনুমতি দেয়নি।

‘যদি আমরা একটি আবেদন পাই, তবে আমরা এটি বিবেচনা করতে পারি। কিন্তু অনেকেই আমাদের না জানিয়ে বিয়ে করে। যারা এদেশে আইন লঙ্ঘন করেছে আমরা তাদের পারমিট বাতিল করেছি। বিবাহিতদের ক্ষেত্রেও একই আইন রয়েছে।’

মালয়েশীয়দের কতজন বিদেশী কর্মী বিয়ে করেছেন এবং কতজন বিয়ের পর তাদের স্ত্রী-সন্তান রেখে দেশে ফিরিয়ে গেছে। তার হিসেবও খতিয়ে দেখা হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী।

গত ১৭ মার্চ সে দেশের সংসদে এমপি দাতুক সেরি ডাঃ ইসমাইল আবদ মুত্তালিব (বিএন-মারান) এর একটি সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান তিনি।

কতজন বিদেশী মালয়েশিয়ায় বিয়ে করেছেন তার কোনো পরিসংখ্যান প্রদান করেননি মন্ত্রী। অন্য প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিদেশী স্বামীদের অপব্যবহার প্রতিরোধে নাগরিকত্ব দেওয়া সহজ করার কোন পরিকল্পনা নেই।

মোহাম্মদ আজিজ বলেন, নির্দিষ্ট সময়ের জন্য স্থায়ী আবাসিক অবস্থাসহ সকল প্রয়োজনীয়তা পূরণ করলেই এই ধরনের আবেদনগুলি বিবেচনা করা হবে।

তিনি বলেন, মালয়েশিয়ানরা তাদের বিদেশী স্বামীদের দেশে থাকতে চায় না। তাদের রাষ্ট্রীয় অভিবাসন কার্যালয়ে আবেদন করতে হবে যাতে তাদের স্বামী-স্ত্রীদের দীর্ঘমেয়াদী ভিসা বা পাস বাতিল করা যায়।

তিনি ব্যাখ্যা করেছিলেন যে সামাজিক সফর বিদেশী নাগরিকদের স্থানীয় মালয়েশিয়ার সাথে বিয়ে হওয়া পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় থাকার অনুমতি দেয়। মালয়েশিয়ানদেরও দায়িত্ব, যারা বিদেশীদের বিয়ে করেছে তারা যাতে এই দেশে থাকাকালীন তাদের স্বামী-স্ত্রী দেশের আইন মেনে চলতে পারে।

পিবিডি/এসএম

মালয়েশিয়া
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত