• বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
  • ||

ভেজা হাতেও অপো এ৬০ ফোন ব্যবহারে পাবেন স্মুদ এক্সপেরিয়েন্স

প্রকাশ:  ০৪ জুন ২০২৪, ০০:১৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

বর্তমানের প্রতিযোগিতামূলক বাজারে স্মার্টফোনগুলিকে সাধারণ ফাংশন বা আকর্ষণীয় ফিচারের চেয়েও বেশি সুবিধা দিতে হচ্ছে। ব্যবহারকারীরা এখন দীর্ঘ সময় ধরে স্বাচ্ছন্দ্যে ফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা চান। যে গুটিকয়েক স্মার্টফোন এই সুবিধা দিচ্ছে, সেগুলির মধ্যে অন্যতম হল অপো এ৬০। এটি ব্যবহারকারীকে প্রত্যাশিত দীর্ঘ ব্যবহার ও দৃঢ়তার নিশ্চয়তা দেবে।

ধরুন, আপনি কোনো ব্যস্ত শহরের মধ্য দিয়ে দ্রুতগতিতে হেঁটে যাচ্ছেন। এমন সময় আপনার হাত থেকে ফোনটি পড়ে গিয়ে রাস্তায় আঘাত করলো। সাথে সাথে ফোনের স্ক্রিন ভেঙে গেলো, আর আপনিও হতাশ হয়ে পড়লেন। আপনি ভাবতে লাগলেন, আরেকটি ফোন নষ্ট হলো। এখন আবার খরচ করে ফোন মেরামত করতে হবে! প্রতিনিয়ত এসব পরীক্ষায় উতরাতে না পারলে স্মার্টফোন দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

তাই প্রত্যেকেই এমন একটা ফোন আশা করেন, যা দৈনন্দিন জীবনের এসব সমস্যা এড়াতে পারবে। অপো এ৬০ এমনই একটি ফোন। এতে আছে ইউএস-সার্টিফায়েড মিলিটারি-গ্রেড শক রেজিট্যান্স।

আজকাল ফোন আমাদের জীবনের অপরিহার্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতিতে আমাদের ফোন ব্যবহারের প্রয়োজন হয়, হতে পারে সেটি রৌদ্রজ্জ্বল দিনে বা অল্প আলোতে। রৌদ্রজ্জ্বল দিনে স্ক্রিনে টেক্সট পড়া বেশ অস্বস্তিকর একটি ব্যাপার। কিন্তু অপো এ৬০-তে বিশেষ ডিসপ্লের মাধ্যমে এই সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। সর্বোচ্চ ৯৫০ নিটস-এর ব্রাইটনেসের মাধ্যমে এটি নিশ্চিত করেছে। ফলে সূর্যের আলো বা অন্ধকারেও এটি দেখা যাবে পরিষ্কারভাবে। অপো এ৬০-এর দারুণ ভিজিবিলিটি ও দুর্দান্ত ইউজার এক্সপেরিয়েন্স এটিকে অন্যান্য ব্র্যান্ডের ফোন থেকে আলাদা করেছে।

কল্পনা করুন একটি বৃষ্টির দিনের কথা, অথবা কল্পনা করুন আপনি হাত ধুচ্ছেন বা ‘হট শাওয়ার’ নিচ্ছেন। এসব পরিস্থিতিতে স্বল্প মানের ফোনগুলি ঠিক মতো কাজ করে না। কিন্ত অপো এ৬০ ব্যতিক্রম। এই ধরনের পরিস্থিতিতে অপো এ৬০-তে কোনো ম্যানুয়াল সেটিংস পরিবর্তন করার প্রয়োজন নেই। এর স্প্ল্যাশ টাচ ফিচার ফোনটির টাচ চিপের সাথে সংযুক্ত। অপোর সাথে টাচ আইসির যৌথ উদ্যোগের কারণে এটি সম্ভব হয়েছে। এই দামের ফোনগুলির মধ্যে শুধু অপো এ৬০ বিশেষ ফিচারটি দিচ্ছে। ফলে এটি বাজারে প্রতিযোগিতায় অনেকটাই এগিয়ে থাকবে। হাত ভেজা থাকলেও ফোনটি ব্যবহার করা যাবে নিরবচ্ছিন্নভাবে।

অপো এ৬০তে রয়েছে ৪৮ মাসের ফ্লুয়েন্সি সার্টিফিকেট। ব্যবহারকারীরা যদি এমন একটি ফোন চান যেটি আনবক্স করার দিনের মতোই মসৃণভাবে পারফর্ম করবে, তাহলে অপো এ৬০ হতে পারে তাদের অন্যতম পছন্দ। চার বছর ধরে ব্যবহারকারীরা পাবেন ‘নতুন ফোন ব্যবহারের’ অনুভূতি৷ প্রথম দিন হোক বা ৪৮ মাস পর, দীর্ঘমেয়াদে একই ধরনের স্বাচ্ছন্দ্য দেবে ফোনটি। ব্যাকগ্রাউন্ডে একাধিক অ্যাপ বা মাল্টিমিডিয়া চালালেও এখন বা ভবিষ্যতে ল্যাগিংয়ের অভিজ্ঞতা হবে না।

স্মার্টফোন,আকর্ষণীয় ফিচার,অপো এ৬০
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close