Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫
  • ||

মনোনয়ন বাতিল: দ্বিতীয় দিনের আপিল শুনানি চলছে

প্রকাশ:  ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:১০ | আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:৩৬
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে প্রাথমিকভাবে বাদ পড়া প্রার্থীদের রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল আবেদনের শুনানি দ্বিতীয় দিনের মতো শুরু হয়েছে।

শুক্রবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অস্থায়ী এজলাসে এ শুনানি চলছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলে ৮০ প্রার্থী বৈধতা পান। খারিজ হয় ৭৬ প্রার্থীর আবেদন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বে পুর্ণাঙ্গ কমিশন আপিলের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে কেউ ক্ষুব্ধ হলে উচ্চ আদালতে যেতে পারবেন।

নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনযায়ী, আপিলের প্রথম দিনে ১ থেকে ১৬০, দ্বিতীয় দিনে ১৬১ থেকে ৩১০ এবং শেষ দিন ৩১১ থেকে ৫৪৩ ক্রমিক পর্যন্ত শুনানি হবে।

গত ২ ডিসেম্বর রিটার্নিং অফিসাররা যাচাই-বাছাই শেষে বৈধ-অবৈধ প্রার্থীর তালিকা প্রকাশের পরদিন ৩ ডিসেম্বর (সোমবার) থেকে নির্বাচন কমিশন আপিল গ্রহণ শুরু করে। বুধবার ছিল আপিল গ্রহণের শেষ দিন।৩০৬৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এগুলো যাচাইয়ের পরে ৭৮৬ জনের প্রার্থিতা বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। ফলে বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়ায় ২২৭৯ জনে।

দেশের ৩৯টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া দুই হাজার ৫৬৭ জন প্রার্থীর মধ্যে বাতিল হয় ৪০২ জন। স্বতন্ত্র হিসেবে দাখিল করা ৪৯৮ জনের মধ্যে ৩৮৪ জন বাতিল হওয়ার পর বৈধ স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে ১১৪ জন।

ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ২৬৪টি আসনে ২৮১ জন প্রার্থীর মধ্যে নৌকার বৈধ প্রার্থী ২৭৮ জন, বাতিল ৩ জন। বিএপির ২৯৫টি আসনে ধানের শীষে ৬৯৬ জন প্রার্থীর মধ্যে বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা ৫৫৫ জন, বাতিল হয়েছে ১৪১ জন। জাতীয় পার্টি ২১০ আসনে ২৩৩ জন প্রার্থীর মধ্যে লাঙ্গল প্রতীকে বৈধ প্রার্থী ১৯৫ জন, বাতিল হয়েছে ৩৮ জন।

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৮ নভেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিল ও ২ ডিসেম্বর বাছাই। ৯ ডিসেম্বর প্রত্যাহার এবং ৩০ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

/পি.এস

মনোনয়ন বাতিল,ইসি
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত