Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬
  • ||

নিজ উদ্যোগে বিএনপি’র ৬ এমপিকে শপথ না নিতে হুঁশিয়ারি

প্রকাশ:  ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ০৪:১৫
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নির্বাচিত ৬ জন সংসদ সদস্য শপথ গ্রহণ ইস্যুতে বৈঠক করেছেন। শপথ নেওয়া নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই বৈঠক শেষ হয়েছে। দলীয় এমপিদের নিজ উদ্যোগে শপথ না নিতে হুশিয়ার করে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাত আটটা থেকে সাড়ে নয়টা পর্যন্ত গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানও উপস্থিত ছিলেন।

সংবিধান অনুযায়ী সংসদের প্রথম বৈঠক থেকে পরবর্তী ৯০ দিন পর্যন্ত সদস্যদের শপথ নেওয়ার সময় নির্ধারিত আছে। সে হিসেবে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত শপথ নেওয়ার জন্য সময় পাবেন বিএনপি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা। এ বিষয়টি বৈঠকে আলোচনা করেন দলীয় সংসদ সদস্যরা। তবে এ বিষয়টি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানা গেছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, হুট করে কেউ যেন নিজ উদ্যোগে শপথ না সে ব্যাপারে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে বিএনপির হাই কমান্ড। বৈঠকে বলা হয়েছে, শপথ নেওয়ার হলে দলীয় সিদ্ধান্তে সবাই একসঙ্গে শপথ নেওয়া হবে। যদি শপথ নেওয়া হয় তবে কবে নেওয়া হবে, কখন নেওয়া হবে তা সব সংসদ সদস্যকে জানানো হবে।

বিএনপির একটি সূত্র জানায়, দলীয়ভাবে এখনও শপথ না নেওয়ার পক্ষেই অবস্থান বিএনপির। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের প্রতিটি আসনেই ভোট কারচুপি, আগের রাতে ব্যালটে সিল মেরে ব্যালটবাক্স ভরে রাখা, প্রশাসন, পুলিশ ও অন্যান্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে যথেচ্ছভাবে ব্যবহার ও কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

প্রসঙ্গত, একাদশ সংসদ নির্বাচনে মাত্র ৮টি আসন পায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এর মধ্যে ৬টি তে বিএনপি ও দুটি আসনে শরিক দল গণফোরাম জয়ী হয়। এরপর জানুয়ারির শুরু থেকেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে সংসদে যোগ না দেওয়ার কথা বলা হলেও গণফোরাম থেকে নির্বাচিত দুই সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ (মৌলভীবাজার-২) ও মোকাব্বির খান (সিলেট-২) এরই মধ্যে শপথ নিয়েছেন। এ কারণে সুলতান মোহাম্মদ মনসুরকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। মোকাব্বির খানকেও বহিষ্কার করার জন্য দলের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসিন মন্টুকে নির্দেশ দিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। আগামী ২০ এপ্রিল দলের কার্য নির্বাহী কমিটির বৈঠকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

পিবিডি-এনই/

বিএনপি
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত