Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বুধবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১০ মাঘ ১৪২৫
  • ||

দেশ স্বৈরাচারের কবলে: বি. চৌধুরী

প্রকাশ:  ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:৪৭ | আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:১৬
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট icon

যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রধান সাবেক প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, দেশ চরম স্বৈরাচার ও স্বেচ্ছাচারের কবলে পড়েছে। এই স্বেচ্ছাচারের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। তরুণরাই পারবে অহিংস আন্দোলনের মাধ্যমে একটি শান্তি সুখের বাংলাদেশ গড়তে।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে বিকল্পধারার সহযোগী সংগঠন প্রজন্ম বাংলাদেশ’র ‘রাজনৈতিক আন্দোলনে অহিংস কর্মসূচি’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তবে তিনি এসব কথা বলেন।

বি. চৌধুরী বলেন, আমি তরুণদের নিয়ে অত্যন্ত আশাবাদী। বিশ্বে যত বড় বড় কল্যাণকর কাজ হয়েছে সব তরুণদের হাত ধরে হয়েছে। আমাদের ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতা আন্দোলন সব তরুণদের হাত ধরে হয়েছে। বর্তমানেও কোটা বিরোধী আন্দোলন করেছে তরুণরা, নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন করেছে ১৪/১৫ বছরের কিশোররা। স্কুলের ছোট ছোট ছেলে মেয়ে রাজপথে দাঁড়িয়ে যখন বলেছে ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিজ’ তখন সারা বাংলাদেশ তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল। সারাবিশ্ব অবাক বিষ্ময়ে তা তাকিয়ে দেখেছে। তাদের এ আন্দোলন ছিল সম্পূর্ণ অহিংস ও শান্তিপূর্ণ।

তারপরও সরকার তাদেও পুলিশ দিয়ে লাঠি পেটা করেছে। তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই চরম স্বেচ্ছাচার ও স্বৈরাচারকে আর সহ্য করা যায় না। তরুণরা এগিয়ে আসলে এই স্বেচ্ছাচার সরকারের বিদায় কেউ ঠেকাতে পারবে না। আমার বিশ্বাস ভবিষ্যতে বাংলাদেশে রক্তপাত, জ্বালাও-পোড়াও, হত্যা, গুম, গ্রেফতার, বুলেট, টিয়ার গ্যাসের সহিংস রাজনীতির স্থান দখল করে নিতে পারে অহিংস গণঅভ্যুত্থান।

প্রজন্ম বাংলাদেশের প্রধান বিকল্পধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরীর পরিচালনায় অন্যন্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিকল্পধারার ভাইসচেয়ারম্যান মঞ্জুর রাশেদ, যুগ্ম মহাসচিব আবদুর রউফ মান্নান, প্রজন্ম বাংলাদেশের নতুন সদস্য ইঞ্জিনিয়ার কাজী মোঃ মাসুদ আলম প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন বিকল্পধারার কেন্দ্রীয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার মো. ইউসুফ, মাহবুব আলী, ব্যারিষ্টার ওমর ফারুক, প্রমুখ।

যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান বলেন, বিকল্পধারা বাংলাদেশ শুরু থেকেই অহিংস আন্দোলনে বিশ্বাসী। বর্তমান তরুণরা দুর্নীতি মুক্ত অন্যায় অবিচার মুক্ত একটি শান্তি সুখের বাংলাদেশ গঠনের লক্ষে এক নতুন যুদ্ধ শুরু করেছে। এ যদ্ধে কোন রক্তপাত ঘটবে না। তরুণরা কোন রক্তপাত চায় না। তারা তাদের মেধা, শ্রম, ঘাম এবং দেশ প্রেম দিয়ে শান্তি সুখের নতুন বাংলাদেশে গঠন করবে। তাদেও এ পথ চলায় সব সময় সাথে থাকবো। আমি বলতে চাই তরুণ প্রজন্ম তোমরা এগিয়ে যাও। তোমাদেও বিজয় অবশ্যম্ভাবী।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রজন্ম বাংলাদেশের প্রধান মাহি বি চৌধুরীর একটি ভিডিও ক্লিপস প্রদর্শন করা হয়। এই ভিডিওটিতে মূলত সংগঠনটির মূল লক্ষ উদ্দেশ্য তুলে ধরা হয়েছে। তাদের মূল ‘স্লোগান’ লড়াই করার দিন শেষ/ শান্তি সুখের বাংলাদেশ’ এ বক্তব্য দিয়ে ভিডিওটি শেষ করা হয়েছে।

যুক্তফ্রন্ট,বি চৌধুরী
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত