Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বুধবার, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১০ মাঘ ১৪২৫
  • ||

ভোটের পরদিনই আকরাম সাহেব উত্তরা ক্লাবে মদ খেতে যাবেন: শামীম ওসমান

প্রকাশ:  ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১:০৬ | আপডেট : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১:২৫
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

নারায়ণগঞ্জে একজন জঙ্গিকে মনোনয়ন দিয়ে বিএনপি প্রমান করেছে তারা নির্বাচনকে বানচাল করতে চায়, বলে মন্তব্য করেছেন সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে বন্দর উপজেলার সল্পেরচক এলাকায় মুক্তিযুদ্ধের সমরক্ষেত্রে উপজেলা আওয়া লীগ আয়োজিত স্থানীয় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের নির্বাচনী কর্মীসভায় এ মন্তব্য করেন। দিনব্যাপী নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের অভিযানে জামায়াত শিবিরের শতাধিক নেতা-কর্মী আটকের বিষয়টি উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, জামায়াত শিবির কর্মীরা নারায়ণগঞ্জে জঙ্গি হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাদের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল। তাদের শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের বিএনপির একটি অংশও সেখানে উপস্থিত ছিল। পুলিশের ভয়ে তারা পালিয়ে এসেছেন। শামীম ওসমান দাবি করেন, তাদের উদ্দেশ হচ্ছে জনমনে আতংক সৃষ্টি করে নির্বাচনকে বানচাল করে দেয়া।

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী সাবেক আওয়ামী লীগ সাংসদ এস এম আকরামের মহাজোট প্রার্থীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা সমালোচনা করছেন বলে অভিযোগ তুলে শামীম ওসমান তাকে সংযত হয়ে কথা বলার জন্য হুশিয়ারি দেন।

এস এম আকরামকে উদ্দেশ করে শামীম ওসমান বলেন, আকরাম সাহেব আপনাকে বলছি এ জেলাতে শুধু আপনি জন্ম নেন নাই। আরো অনেকে জন্ম নিয়েছেন। বিএনপির নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ করে শামীম ওসমান বলেন, নির্বাচনের পরদিন আপনারা আর আকরাম সাহেবকে কোথাও খুঁজে পাবেন না। তিনি উত্তরা ক্লাবে মদ খেতে চলে যাবেন। মওদুদীর কাজ মদ খাওয়া।

তিনি বলেন, আকমার সাহেব আপনাকে আবারো বলছি, খোঁচা দিবে না। ভীমরুলের চাকে খোঁচা দিবেন, ভীমরুলের দল বাসা থেকে বেরিয়ে আসবে। তখন কিন্তু আপনি টিকতে পারবেন না।

আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয় নিশ্চিত জানিয়ে শামীম ওসমান বলেন, শেখ হাসিনাই আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন এবং নারায়ণগঞ্জের পাঁচটি আসনেই মহাজোট প্রার্থীরা বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন।

কর্মী সভায় সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান জানান, গেলবার নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে তিনি উন্নয়নরে কাজ করেছিলেন। তবে এবার বিজয়ী হলে জনগণের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করবেন এবং জনগণকে আরো বেশি প্রাধান্য দেবেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, এবার যে পরিমান উন্নয়নে করেছেন তাতে আগামী নির্বাচনে লাঙ্গল প্রতীকে বিএনপির ভোটই বেশি পড়বে।

কর্মীসভায় সংরক্ষিত নারী সাংসদ এডভোকেট হোসনে আরা বাবলি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল, জাতীয় পার্টি জেলা আহবায়ক আবু জাহের, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক শাহ নিজামসহ আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা এবং সিটি করপোরেশন ওয়ার্ড কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জ এলাকায় কদম রসূল দরগায় জুম্মার নামাজ আদায় করে নির্বাচনী প্রচারণা চালান এই আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী এস এম আকরাম। তিনি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তার কর্মী সমর্থকদের গ্রেফতার করা হচ্ছে বলে পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন। তিনি মনে করেন, প্রশাসন নিরপেক্ষ না থাকলে সরকারের ঘোষিত সুষ্ঠু নির্বাচন কোনভাবেই সম্ভব নয়।

/পি.এস

নারায়ণগঞ্জ,শামীম ওসমান,ভোট
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত