Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬ ফাল্গুন ১৪২৫
  • ||

জামিন পেলেন সেই তারা মিয়া

প্রকাশ:  ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২৩:৩০ | আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২৩:৪৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন পেয়েছেন সুনামগঞ্জের প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক তারা মিয়া।

বুধবার বিচারপতি মো. রইছ উদ্দিন ও বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের বেঞ্চে এ জামিন আদেশ দেন। একই সাথে, জামিনের সময় শেষ হয়ে গেলে তারা মিয়াকে সুনামগঞ্জের নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মো. আবিদুল হক। সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. সাইফুল ইসলাম।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর ষড়যন্ত্র ও হত্যার উদ্দেশ্যে পুলিশের ওপর আঘাত করার অভিযোগ এনে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাটি করেন সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থানার এসআই মো. তারিকুল ইসলাম। মামলায় ৫২ জনকে আসামি করে পুলিশ। তারা মিয়া সেই ৫২ জনের একজন।

এ নিয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে খবর প্রকাশের পর ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। ওই খবরে বলা হয়, ডান হাতটি অস্বাভাবিক চিকন, নাড়াতেই কষ্ট হয়। কিছু ধরতে বা কাজ করতে পারেন না ডান হাত দিয়ে। এমনকি ডান হাতে খেতেও পারেন না। এটি তার জন্মগত সমস্যা। বাম হাত তুলনামূলকভাবে লম্বা এবং বাঁকানো। খুব কষ্ট করে বাম হাত দিয়ে খেতে হয়। ছবির এই মানুষটির ডান হাত অচল, বাম হাতও প্রায় অচল। তিনি সুনামগঞ্জের অধিবাসী, নাম তারা মিয়া। তারা মিয়া চাপাতি, হকিস্টিক ও লোহার রড হাতে নিয়ে আক্রমণ করেছেন পুলিশের ওপর। ভিক্ষা করে জীবনযাপন করা তারা মিয়ার বিরুদ্ধে পুলিশ এমন অভিযোগ এনে মামলা করেছে।

এ বিষয়ে ওই পত্রিকার সংশ্লিষ্ট সংবাদদাতাকে তারা মিয়া বলেন, আমাকে বলছে আমি বোমা মারছি, আমার এলাকায় আমি ৩৭ নম্বর আসামি। আমি কি মারতে পারবো? আমি প্রতিবন্ধী মানুষ। এখান থেকে আমি মুক্তি চাই।

যদিও জামালগঞ্জ থানা পুলিশের দাবি, হামলায় সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলেন এই ব্যক্তি। তিনি বলেন, উনার একটা হাতে সমস্যা কিন্তু আরেকটা হাত অত্যন্ত সচল। ব্যবসা বাণিজ্য করে, চলাফেরা করে সবই তার ঠিক আছে। মামলাটা যথার্থ হয়েছে।

এ বিষয়ে আইনজীবীরা বলছেন, তদন্তে ত্রুটি থাকলে পুরো মামলাই প্রশ্নবিদ্ধ হয়। তদন্ত হওয়ার পাশাপাশি ভবিষ্যতে আরও সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

/পিবিডি/একে

ছবি: সংগৃহীত
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত