Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫
  • ||
শিরোনাম

নারায়ণগঞ্জে বর্তমান, সাবেক কাউন্সিলরসহ গ্রেফতার ২২

প্রকাশ:  ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫০
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রিন্ট icon

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কবীর হোসেন ও সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্নার সমর্থকদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় মুন্না গ্রুপের হামলায় কাউন্সিলর কবীরসহ কমপক্ষে ১০জন মারাত্মক আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টা থেকে থেমে থেমে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে একে অপরের উপর হামলা করেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।

সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ভোরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বর্তমান, সাবেক কাউন্সিলরসহ ২২ জনকে গ্রেফতার করেছে। কবির হোসেন ১৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং কামরুল হাসান মুন্না মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সাবেক কাউন্সিলর মুন্নার লোকজন প্রথমে কাউন্সিলর কবীর এর উপর হামলা করে। এসময় মুন্নার পক্ষের কয়েক যুবক ফাঁকা গুলি বর্ষণ করলে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। এক পর্যায়ে কবীরের লোকজন খবর পেয়ে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে ঘটনাস্থলে আসলে সংঘর্ষ চরম আকার ধারণ করে। সংঘর্ষে কাউন্সিলর কবীর, নেয়ামত উল্লাহ, সুজন, সত্যজিৎ ও দূর্জয় সহ ১০ জনকে রক্তাক্ত অবস্থায় জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, সাবেক কাউন্সিলর মুন্না এলাকায় অনেকটাই অপ্রতিরোধ্য। স্থানীয় একজন জনপ্রতিনিধির নাম ব্যবহার করে মুন্না বর্তমান কাউন্সিলর কবীরের বিরুদ্ধে নানা সময় অবস্থান নিচ্ছে।

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বর্তমান ও সাবেক কাউন্সিলের পক্ষের মধ্যে আগে থেকে বিরোধ চলছিল। রোববার মসজিদের টাকার হিসাব চাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় বর্তমান, সাবেক কাউন্সিলরসহ ২২ জনকে আজ ভোরে গ্রেফতার করা হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা হয়েছে।

/পিবিডি/পি.এস

নারায়ণগঞ্জ,কাউন্সিলর,গ্রেফতার
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত