Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৯ ফাল্গুন ১৪২৫
  • ||

মেলায় এল আদনীন কুয়াশার গল্পগ্রন্থ ‘এখানে যুক্তিরা মৃত’

প্রকাশ:  ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:০০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট icon

আদনীন কুয়াশাকে নবীন লেখিকা বলাটা ঠিক হবে না। এরই মধ্যে তিনি গড়ে তুলেছেন পরিচিতির বিশাল বলয়। সোশাল মিডিয়ায় নিতান্ত শখে লেখা গল্পগুলো পোস্ট করে বন্ধুদের কাছে বাহাবা পান।সেই অনুপ্রেরণায় গদ্যের কঠিন ভূমিতে সিরিয়াসলি হাঁটাচলা শুরু করেন। গতবছর প্রকাশিত হয় লেখিকার প্রথম গল্পগন্থ ‘অষ্ট অম্বর’। নগরজীবনের টুকরো চালচিত্র নিয়ে লেখা আটটি গল্প দিয়ে সাজানো এ বইটি পাঠক সমাদৃত হয়। সেই ধারাবাহিকতায় এবারের অমর একুশে বইমেলায় ভিন্ন আঙ্গিকে হাজির হয়েছেন

মেলায় এসেছে আদনীন কুয়াশার দ্বিতীয় গল্পগ্রন্থ ‘এখানে যুক্তিরা মৃত’। এতে রয়েছে পাঁচটি রহস্য গল্প। এসব গল্পে তিনি অনুসন্ধান করেছেন জীবনের অপার রহস্যের। কিছু জাদুবাস্তবতা আর কিছুটা পরাবস্তাব ঘটনার মিশেলে আলো-আধারির গল্পগুলো পাঠকের সামনে তুল ধরা হয়েছে। এ গল্পের বাস্তব চরিত্রগুলোর কথা বলে পারবাস্তব জগতের ফুলপাখিদের সঙ্গে। পাপড়ি ঝরানো বিকেলে বাগানের ফুলগুলো মালিহাকে বলে দেয় তোমার বিায় নেয়ার সময় এসেছে।অসময়ে বিধবা নীলুকে ছায়াহীন এক মানবী ছুঁয়ে দিয়ে কিছু বলতে চায়। ঘনকৃষ্ণবর্ণ একটা ১০/১২ বছরের ছেলে মীরার দিকে তাকিয়ে দাঁত বের করে হাসে ,মীরা যখন হাত বাড়িয়ে তাকে ছোঁয়ার চেষ্টা করে তখনই আলোর ঝলকানি সে মেয়ে হয়ে যায়। রহস্যমানব মুকু আসলে কে?

‘এখানে যুক্তিরা মৃত’ বইটির প্রতিটি গল্প পাঠকের মনে জাগিয়ে দেবে বিস্ময়, নিয়ে যাবে অতিপ্রকৃত আধিভৌতিক জগতে। এ প্রসঙ্গে গল্পকার আদনীন কুয়াশা বলেন,জীবন রহস্যময়। প্রকৃতি মাঝে মাঝে নিয়মের বাইরের কিছু ঘটনা ঘটায়। যার কোন ব্যখ্যা হয় না,এই ব্যাপার গুলোর থাকে না কোন কারণ,থাকেনা যুক্তি; কেননা এখানে যে যুক্তিরা মৃত। পাঠকদের ভিন্নস্বাদ দিতেই এবার রহস্যগল্প দিয়ে আমি আমার বইটি সাজিয়েছি।

তিনি বলেন, আমার লেখা গল্পে সচরাচর আমাদের চেনা চরিত্রগুলোকে চেনা জগতে তুলে ধরা চেষ্টা করি আমি। এবার পাঠককে ভিন্ন স্বাদ দিতে চেনা জগত ও চেনা চরিত্রের সঙ্গে অচেনা জগত ও অচেনা চরিত্রের যোগাযোগ ঘটিয়ে দিলাম। তাদের মিথস্ক্রিয়ায় এগিয়ে যায় আমার প্রতিটি গল্প।

প্রতিটা চরিত্র যখন আমি লিখি মনে হয়,কেমন যেন বড্ড পরিচিত। দবীর সাহেবের মতো ভালো মানুষগুলো আছে বলেই পৃথিবী এতো সুন্দর। রাহেলারা বুকের কষ্ট বুকে লুকিয়েই সংসার করে যায় সারাটা জীবন।

‘এখানে যুক্তিরা মৃত’ প্রকাশ করেছে পাললিক সৌরভ প্রকাশনী। বইমেলায় স্টলে নং-৩৮৬ তে বইটি পাওয়া যাচ্ছে।

গল্পকার আদনীন কুয়াশার জন্ম ঢাকায়। ছোটবেলা থেকে শিল্প-সংস্কৃতি চর্চার সঙ্গে জড়িত। বিটিভির নতুন কুঁডি প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। বই পড়ার অভ্যাস থেকেই সাহিত্য চর্চার প্রতি আগ্রহ তৈরি হয়। শুরুতে কবিতা লিখতেন। এখন গল্প লিখেন। ফেসবুকে নিজের লেখা গল্পগুলো পোস্ট করে বন্ধুদের কাছ থেকে প্রচুর বাহবা কুড়ান। প্রিয় লেখকদের মধ্যে রয়েছে হুমায়ূনআহমেদ, নিহারঞ্জন গুপ্ত ও সুনীল গঙ্গোপাধ্যয়। ভালো লাগে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জয়গোস্বামীর কবিতা।

বইমেলা,আদনীন কুয়াশা,গল্প
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত