• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১
  • ||

৩৪ হজযাত্রীকে হয়রানি, এজেন্সিকে শোকজ

প্রকাশ:  ২৮ মে ২০২৩, ১৩:৪৩
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

সৌদিআরবে যাওয়ার পর ৩৪ হজযাত্রীকে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ এয়ার ট্রাভেলস নামে একটি এজেন্সির বিরুদ্ধে। ওই এজেন্সির বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে শোকজ করা হয়েছে।

শনিবার (২৭ মে) মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই শোকজ করা হয়। এজেন্সির বিরুদ্ধে অভিযোগ, হজযাত্রীদের সেখানকার বাড়ি ভিসার সঙ্গে মিল না থাকায় লাগেজ নিয়ে বিপাকে পড়তে হয়েছে সৌদির ট্রাক চালককে। এক পর্যায়ে যাত্রীদের লাগেজ সৌদির হজ মিশনে রেখে দেন। পরে এজেন্সির পক্ষ থেকে নেয়ার ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে এজেন্সির মালিককে দেওয়া শোজকের চিঠিতে বলা হয়েছে, বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজ পরিচালনাকারী এজেন্সি Bangladesh Air Travels (HL-693), Cosmic Tower (8th Floor, 9-C), 106/ka, Nayapaltan, Box calvard Road, Dhaka স্বত্বাধিকারী/ব্যবস্থাপনা পরিচালক / অংশীদার হিসেবে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২১ এর ৩৯ ধারায় বর্ণিত নিবন্ধনের শর্তসমূহ পালনে দৃঢ়ভাবে অঙ্গীকারবদ্ধ। কিন্তু আপনার এজেন্সির বিরুদ্ধে বাংলাদেশ হজ অফিস, মক্কা আল মোকাররমা, সৌদি আরব হতে নিম্নরূপ অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে বলা হয়, 'বাংলাদেশ এয়ার (হজ লাইসেন্স নং-৬৯৩) এর ৩৪ হজযাত্রীর বাড়ি ভিসার সঙ্গে মিল না থাকায় তাদের লাগেজ ট্রাক ড্রাইভার বাড়িতে নামাতে না পেরে রাত দুইটায় হজ মিশনে রেখে যায়। মালামাল নেওয়ার জন্য উক্ত এজেন্সিকে জানানো হলেও বিকেল পর্যন্ত মালামাল নেওয়ার ব্যবস্থা করেনি। এতে হজযাত্রীদের কষ্ট হচ্ছে। হজযাত্রীদের ভাড়াকৃত বাড়ি হোটেলে ভিসার সঙ্গে মিল নেই; যার কারণে হজযাত্রীদের লাগেজ নির্দিষ্ট বাড়ি/হোটেলে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। এতে হজযাত্রীরা কষ্টের সম্মুখীন হচ্ছে। সেক্ষেত্রে সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনায় চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়েছে এবং সরকারের হজ ব্যবস্থাপনা সংশ্লিষ্ট নির্দেশনা উপেক্ষিত হয়েছে ও মক্কা রোড সার্ভিস কার্যক্রম ব্যাহত হয়েছে।

এমন কর্মকাণ্ড হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২১ এর পরিপন্থী; এবং যেহেতু এ ধরনের অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার অন্তরায় বলেও এতে দাবি করা হয়েছে।

শোকজের চিঠিতে আরও বলা হয়, এ ধরনের কার্যক্রম হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২১ এর ১২ ধারা অনুযায়ী প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের কারণসমূহ বিদ্যমান। সেহেতু বাংলাদেশ এয়ার ট্রাভেলসের বিরুদ্ধে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা আইন, ২০১ এর ১৩ ধারা অনুযায়ী কেন প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তার জবাব আগামী তিন দিনের মধ্যে এ মন্ত্রণালয়ে দাখিল করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

হজযাত্রী
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close